অবৈধ কমিটির মাধ্যমে বিতর্কিত ব্যক্তিকে নিয়োগ : অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ

faruq

আব্দুল্লাহ রিয়েল, ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় জামায়াতের ঘাটিঁ খ্যাত আল হেলাল একাডেমির প্রধান শিক্ষক পদে বিতর্কিত ব্যক্তিকে নিয়োগ দেয়ায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, নিয়ম বহির্ভূতভাবে মাধ্যমিক স্কুলের (আল হেলাল একাডেমি) পরিচালনা কমিটিতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক (কামাল হোসেন)কে সদস্য করা হয়েছে।

নিয়োগপ্রাপ্ত ওমর ফারুক জেলা জামায়াতের সূরা সদস্য (রোকন) ও জয়পুর স্বরজনি হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক। যার বিরুদ্ধে একাধিক নাশকতার মামলাও রয়েছে। নিয়োগ প্রক্রিয়া ও বিতর্কিত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবীতে ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে আবেদন করেছেন শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও উপজেলা আ’লীগ সভাপতি অধ্যাপক মফিজুল হক, শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও পৌর আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আবু তৈয়ব বাবুল , শিক্ষার্থীর অভিভাবক নুরুল আলম মিস্টার এবং পৌরসভার প্যানেল মেয়র শেখ কলিম উল্লাহ রয়েল।

তারা বলেন, নিয়ম বহির্ভূতভাবে আল হেলাল একাডেমির পরিচালনা কমিটিতে আল হেলাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনকে সদস্য করা হয়েছে। ত্রুটিপূর্ন উক্ত কমিটি স্থানীয় জামায়াত নেতাদের সাথে যোগসাজসে জামায়াতের রোকন ও নাশকতা মামলার আসামীকে নিয়োগ দেয়ার পায়তারা করছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নুরুল আমিন বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কোনভাবে মাধ্যমিক স্কুলের পরিচালনা কমিটির সদস্য হতে পারবেনা। ওই পরিচালনা কমিটি ক্রুটিপূর্ন।

তিনি আরও বলেন, আল হেলালের প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আমরা ৭ সদস্যের কমিটি পরীক্ষা নিয়েছি । পরীক্ষার ফলাফল পরিচালনা কমিটির সভাপতির কাছে পাঠিয়েছি। তিনি উক্ত নিয়োগ দেয়ার চুড়ান্ত ক্ষমতা রাখেন। তবে বিতর্কিত কাউকে নিয়োগ দেয়া আমরা কোনভাবে সমর্থন করিনা। শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও উপজেলা আ’লীগ সভাপতি অধ্যাপক মফিজুল হক বলেন, জামায়াত-শিবিরের ক্যান্টনমেন্টখ্যাত আল হেলাল একাডেমি থেকে এক সময় জামায়াতের রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালিত হতো। কিছুদিন যাবত তা সরকারের নিয়ন্ত্রিত ছিল। জামায়াতের রোকন ওমর ফারুককে নিয়োগের মাধ্যমে আবারো সরকার বিরোধি কর্মকান্ড পরিচালিত হবে সেই প্রতিষ্ঠান থেকে তা ছাড়া উক্ত ত্রুটিপুর্ন কমিটি সম্পূর্ন অবৈধ তাই এ কমিটির মাধ্যমে কোন নিয়োগ দেয়া আইনসিদ্ধ নয়।

এ ব্যাপারে ওমর ফারুক  বলেন, আমি জামায়াতের রাজনীতিতে সরাসরি কখনো সম্পৃক্ত ছিলাম না । এবং আমার বিরুদ্ধে বর্তমানে কোন মামলা নেই।

আল হেলাল একাডেমি পরিচালনা কমিটির সভাপতি শামসুল হক  বলেন, নিয়োগ কমিটির সদস্যরা সর্বোচ্চ নাম্বারপ্রাপ্ত হিসেবে ওমর ফরুকের নাম প্রস্তাব করেছে। আমি সভাপতি হিসেবে উক্ত প্রস্তাবনার সমর্থন করতে হবে।

Comments

comments