বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জের, সপ্তাহান্তে রাজ্যে দুর্যোগের ভ্রূকুটি

 
প্রকাশিত: 07/15/2021 at 11:18 am

নব্যেন্দু হাজরা: বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জের। সপ্তাহান্তে রাজ্যে দুর্যোগের ভ্রূকুটি। বাড়বে বৃষ্টি (Rain)। উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। বিক্ষিপ্ত ভারী বৃষ্টিতে ভিজতে পারে দক্ষিণবঙ্গ। তার ফলে বাড়তে পারে নদীর জলস্তর। নীচু এলাকায় প্লাবনের আশঙ্কা এড়ানো যাচ্ছে না। পাহাড়ে নামতে পারে ধস।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, বৃহস্পতি ও শুক্রবার দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টি হতে পারে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। গরমের সঙ্গে বাড়বে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। বৃহস্পতিবার কলকাতায় আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয় বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯২ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছে সামান্য।

তবে গুজরাটের সৌরাষ্ট্র ও কচ্ছ এলাকায় তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। বিশাখাপত্তনমের উপর দিয়ে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত সেটি বিস্তৃত। অসমে রয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্ত। তার ফলে শনিবার থেকে বাংলায় বাড়বে বৃষ্টির পরিমাণ। রবিবার কয়েকটি জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টি বাড়বে। শুক্রবার থেকে দার্জিলিং, মালদহ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর-সহ পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টি শুরু হবে। সপ্তাহান্তে ওই জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির (Heavy To Very Heavy Rainfall) পূর্বাভাস। আগামী চার-পাঁচদিন বৃষ্টি বাড়বে উত্তর-পশ্চিম ভারতেও। শনি, রবিবার বৃষ্টি বাড়বে পূর্ব ও উত্তর-পূর্ব ভারতে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দক্ষিণ ভারত এবং উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা। উত্তরাখণ্ড, হিমাচলপ্রদেশে প্রবল বর্ষণের আশঙ্কাও এড়ানো যাচ্ছে না।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন । আজই পাঠিয়ে দিন - write@sarabangla.in