মহানগর Lalbazar-এর গুন্ডাদমন শাখার আধিকারিকের ভুয়ো পরিচয় দিয়ে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে ধৃত ব্যক্তি

 
প্রকাশিত: 08/03/2021 at 12:12 pm

আবারও কলকাতা পুলিশের ভুয়ো (Fake)অফিসারের পরিচয় দিয়ে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ। বেহালার (Behala) পর্ণশ্রী থেকে আটক পার্থ দত্ত নামে এক ব্যক্তি। চাকরি দেওয়ার নাম করে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়েছেন পার্থ দত্ত। অভিযোগ পেতেই পুলিশ সোমবার তাকে আটক করেছে। তার কাছ থেকে বিভিন্ন নথিপত্র দেখতে চাওয়া হয়। পর্যাপ্ত প্রমাণ দিতে না পারলে গ্রেপ্তার হবেন তিনি। এর আগেও নিজেকে IPS পরিচয় দিয়ে কলকাতা থেকেই গ্রেপ্তার হয়েছিল রাজর্ষি ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তি। তার সঙ্গে দুই শাগরেদকেও গ্রেপ্তার করা হয়। এবার আরও এক ভুয়ো অফিসার ধরা পড়ল পুলিশের জালে।

পুলিশ সূত্রে খবর, আটক পার্থ দত্ত বেহালার পর্ণশ্রীর বাসিন্দা। তিনি নিজেকে কলকাতা পুলিশের গুন্ডাদমন শাখার (ARS) অফিসার বলে পরিচয় দিতেন। নিজের প্রভাব খাটিয়ে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে স্থানীয় যুবকদের থেকে হাজার, লক্ষ টাকা আদায় করতেন। তারপর প্রতিশ্রুতিমতো চাকরি দিতে পারতেন না। এভাবেই পাড়ার এক যুবকের থেকে দফায় দফায় প্রায় দেড় লক্ষ টাকা আদায়ের পর মোটা অঙ্কের আরও টাকা দাবি করেন তিনি। তাতে ওই যুবক জানায় যে চাকরি পাওয়ার আশায় তাঁর সব টাকাই তিনি পার্থকে দিয়েছেন, আর কোনও অর্থ দিতে পারবেন না। তারপর অবশ্য পার্থও আর তাঁকে চাকরি দেওয়ার প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেননি। বরং প্রশ্ন করলে এড়িয়ে গিয়েছেন বলে অভিযোগ। তাতেই সংশয় জাগে ওই যুবকের।
চাকরির জন্য এতদিন যে টাকা দেওয়া হয়েছিল পার্থকে, সেই টাকা ফিরিয়ে আনতে সোমবার সন্ধেবেলা অভিযুক্ত পার্থর বাড়িতে যান ওই যুবক। কোনও টাকা ফেরত দিতে রাজি হননি পার্থ। এরপরই তাঁকে ঘরের মধ্যে আটকে রেখে স্থানীয় থানায় খবর দেন ওই যুবক ও তাঁর বন্ধুরা। পুলিশ বাড়ি থেকে পার্থ দত্তকে আটক করে নিয়ে যায়। সেখান থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ‘কলকাতা পুলিশ’-এর স্টিকার লাগানো তাঁর বাইকটিও। এভাবে কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) নাম করে, ভুয়ো পরিচয় দিয়ে একাধিক ব্যক্তির অসাধু কার্যকলাপের খবর প্রকাশ্যে আসায় যথেষ্ট বিড়ম্বনায় পুলিশ মহলও।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন । আজই পাঠিয়ে দিন - write@sarabangla.in