Breaking News

বিবাদ মীমাংসা করতে আসা চান্দৌলি পুলিশ দলের উপর গ্রামবাসীদের হামলা ৬ পুলিশ সদস্য আহত – আপ নিউজ

খবর শুনতে

চান্দৌলি জেলার কোদাই গ্রামে, রবিবার গভীর রাতে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ মীমাংসা করতে আসা পুলিশ দলের উপর গ্রামবাসীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়। এতে ইন্সপেক্টরসহ ছয় পুলিশ সদস্য আহত হন। গ্রামবাসীরা পাথর ছুড়ে পুলিশের গাড়িও ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় একাধিক থানার ফোর্স। আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ২৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে চার অভিযুক্তকে। অন্যদের খোঁজে পুলিশের টিম অভিযান চালাচ্ছে।

এসপি চান্দৌলি অঙ্কুর আগরওয়ালের মতে, কান্দওয়া থানার কোদাই গ্রামে সন্দেহজনক পরিস্থিতিতে একজন হোম গার্ডের মৃত্যু হয়েছে। হত্যার অভিযোগে পার্শ্ববর্তী গ্রামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে এদিকে রবিবার গভীর রাতে নিহত হোম গার্ডের ছেলে অভিযুক্তের বাড়িতে পৌঁছে তাকে গালিগালাজ শুরু করে।

কঠোরতা নিয়ে উত্তেজিত গ্রামবাসীরা

বাধা দিলে তিনি মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। একইসঙ্গে বিষয়টি বাড়তে দেখে অপরপক্ষ ডায়াল ১১২ পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিষয়টি বোঝার চেষ্টা করলে গ্রামবাসীরা পুলিশের সঙ্গে দুর্ব্যবহার শুরু করে এবং তাদের ধাক্কা দেয়।

খবর পেয়ে কান্দওয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। কঠোর হওয়ায় গ্রামবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। লাঠিসোঁটা হামলায় এসএইচও কান্ডোয়া রাজেশ সরোজসহ প্রায় ছয় পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা চলছে। এ ঘটনায় চার আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের দল অন্য হামলাকারীদের খোঁজে নিয়োজিত রয়েছে।

স্থানীয়দের মতে, গ্রামবাসীদের আক্রমণের পর পুলিশের দল পুরোপুরি পিছিয়ে আসে এবং কোনোরকমে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সৈয়দরাজা ও ধীনা থানার পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এ ছাড়া এসপি চান্দৌলিও ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন। একই সঙ্গে আহত পুলিশ সদস্যদের জেলা হাসপাতালের পরিবর্তে গাজীপুরের জামানায় পাঠানো হয়েছে।

সম্প্রসারণ

চান্দৌলি জেলার কোদাই গ্রামে, রবিবার গভীর রাতে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ মীমাংসা করতে আসা পুলিশ দলের উপর গ্রামবাসীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়। এতে ইন্সপেক্টরসহ ছয় পুলিশ সদস্য আহত হন। গ্রামবাসীরা পাথর ছুড়ে পুলিশের গাড়িও ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় একাধিক থানার ফোর্স। আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ২৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে চার অভিযুক্তকে। অন্যদের খোঁজে পুলিশের টিম অভিযান চালাচ্ছে।

এসপি চান্দৌলি অঙ্কুর আগরওয়ালের মতে, কান্দওয়া থানার কোদাই গ্রামে সন্দেহজনক পরিস্থিতিতে একজন হোম গার্ডের মৃত্যু হয়েছে। হত্যার অভিযোগে পার্শ্ববর্তী গ্রামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে এদিকে রবিবার গভীর রাতে নিহত হোম গার্ডের ছেলে অভিযুক্তের বাড়িতে পৌঁছে তাকে গালিগালাজ শুরু করে।

কঠোরতা নিয়ে উত্তেজিত গ্রামবাসীরা

বাধা দিলে তিনি মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। একইসঙ্গে বিষয়টি বাড়তে দেখে অপরপক্ষ ডায়াল ১১২ পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিষয়টি বোঝার চেষ্টা করলে গ্রামবাসীরা পুলিশের সঙ্গে দুর্ব্যবহার শুরু করে এবং তাদের ধাক্কা দেয়।


Source link

About sarabangla

Check Also

গুজরাট নির্বাচন 2022 এর প্রথম ধাপে শীর্ষ দশটি ধনী প্রার্থী

গুজরাটের তিন ধনী প্রার্থী – ছবি: আমার উজালা খবর শুনুন খবর শুনুন গুজরাটে, 89টি বিধানসভা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *