Breaking News

IND বনাম PAK T20 এশিয়া কাপ 2022 বিজয়ীর ভবিষ্যদ্বাণী: চোটপ্রাপ্ত খেলোয়াড়রা ভারত-পাকিস্তানের ঝামেলা বাড়ায়, জেনে নিন কার ওপরে আছে

হাইলাইট

কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে
এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেলেন রবীন্দ্র জাদেজা
চোট পেয়েছেন পাক ফাস্ট বোলার শাহনওয়াজ দাহানিও

নতুন দিল্লি. চির প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান (ভারত বনাম পাকিস্তান) 2022 সালে এশিয়া কাপের দ্বিতীয়বার দেখা হতে চলেছে। এশিয়া কাপের লিগ পর্বে রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন টিম ইন্ডিয়া পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে। এবার পরিস্থিতি পাল্টেছে দুই দলেরই। চোটের কারণে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেলেন ভারতের তারকা অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা। একই সঙ্গে পাকিস্তানের উঠতি ফাস্ট বোলার শাহনওয়াজ দাহানিও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবেন না। এছাড়া ভারতের প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড় জানিয়েছেন, ভারতীয় ফাস্ট বোলার আভেশ খানও পুরোপুরি ফিট নন। এমতাবস্থায় দুই দলের প্লেয়িং 11-এ পরিবর্তন আসতে বাধ্য। চলুন জেনে নেওয়া যাক আজ কোন দল এগিয়ে থাকবে।

ওপেনিংয়ে নেই বাবর-রিজওয়ান
প্রায় দুই বছর ধরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দোলা দিয়েছে বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের জুটি। ভারত ও হংকংয়ের বিপক্ষে যাননি বাবর। কিন্তু 24 মাসে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে হাজার রান করেছেন তিনি। একই সঙ্গে হংকংয়ের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি করে প্রতিপক্ষ দলগুলোকে সতর্ক করেছেন রিজওয়ান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে উভয় খেলোয়াড়ের গড় ৫০-এর উপরে।

ওপেনিং জুটি ভারতীয় দলের জন্য সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেএল রাহুলের বারবার ইনজুরির কারণে, টিম ইন্ডিয়া 2021 সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ইশান কিশান, ঋষভ পান্ত, সূর্যকুমার যাদবের মতো খেলোয়াড়দের চেষ্টা করেছে। তবে টিম ইন্ডিয়ার প্রথম পছন্দ রোহিত শর্মা ও কেএল রাহুল। শেষ দুই ইনিংসে তেমন কিছু করতে পারেননি রোহিত। একই সঙ্গে রাহুল এখনও তার ছন্দ খুঁজে চলেছেন।

মিডল অর্ডারে পাকিস্তানের চেয়ে দুই ধাপ এগিয়ে ভারত
ভারতীয় মিডল অর্ডারের প্রাণ, বিরাট কোহলি ৩৫ ও ৫৯* রানের ইনিংস খেলে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রায়ই তার ব্যাট চলে। 2012 সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলা তার 183 রানের ইনিংস কোনো ক্রিকেটপ্রেমী ভুলতে পারবে না। একই সঙ্গে চার নম্বরে থাকা সূর্যকুমার যাদব বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক খেলোয়াড়। তিনি মাঠের প্রতিটি দিকে শট করতে সক্ষম।

তিন নম্বরে পাকিস্তানের হয়ে খেলতে নামেন ফখর জামান। তার ফর্মে বারবার উত্থান-পতন হচ্ছে। তা সত্ত্বেও তিনি পাকিস্তানের তৃতীয় সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান। ইফতেখার আহমেদ ও খুশদিল শাহ, যারা এর পরে মাঠে নেমেছেন, তাদের বড় ফোরামে তেমন অভিজ্ঞতা নেই।

ফিনিশার হিসেবে হার্দিক-কার্তিক বেশি কার্যকর
রবীন্দ্র জাদেজার প্রস্থান সত্ত্বেও, ভারতের কাছে হার্দিক পান্ড্য এবং দীনেশ কার্তিকের মতো দুটি দুর্দান্ত ফিনিশার রয়েছে। ঘনিষ্ঠ ম্যাচে, উভয় খেলোয়াড়ই তাদের অভিজ্ঞতা দিয়ে পার্থক্য তৈরি করার ক্ষমতা রাখে। একই সঙ্গে পাকিস্তানের হয়ে এই ভূমিকা পালন করছেন আসিফ আলী। কিন্তু ভারতীয় বোলিংয়ের সামনে তিনি কেমন করতে পারেন সেটাই দেখার বিষয়।

স্পিন বোলিংয়ে মোহাম্মদ নওয়াজ ও শাদাব খানের জুটি বিপজ্জনক
পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খান ম্যাচজয়ী খেলোয়াড়। ভারতের বিপক্ষে মাত্র ১৯ রান দিয়েছিলেন এবং হংকংয়ের বিপক্ষে নেন ৪ উইকেট। দুই ম্যাচে এখন পর্যন্ত ৯ উইকেট নিয়েছেন নওয়াজ। দুই খেলোয়াড়ই ব্যাটিং করতে পারদর্শী। জাদেজাকে আউট করায় তার জায়গায় নিতে পারেন অক্ষর প্যাটেল। একই সঙ্গে দ্বিতীয় স্পিনার হিসেবে খেলবেন যুজবেন্দ্র চাহাল। চাহাল ব্যাটিংয়ের জন্য পরিচিত নয়। অন্যদিকে জাদেজার মতো ব্যাট করতে পারেন না অক্ষর।

ফাস্ট বোলিংয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন নাসিম শাহ ও ভুবনেশ্বর কুমার
এশিয়া কাপের আগে ইনজুরির কারণে দলের বাইরে ছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি ও মোহাম্মদ ওয়াসিমের মতো। ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচের আগে চোট পান শাহনওয়াজ দাহানিও। বোলিংয়ের সব দায়িত্ব এখন নাসিম শাহ ও হারিস রউফের জুটির ওপর। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি অভিষেক হওয়া নাসিম গত দুই ম্যাচে নিজের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ করেছেন। একই সঙ্গে রউফ একজন অভিজ্ঞ বোলার।

এখনও পর্যন্ত ভারতের দিক থেকে শুধুমাত্র ভুবনেশ্বর কুমারই তার প্রভাব ফেলে যেতে পেরেছেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে নিয়েছেন ৪ উইকেট। আরশদীপ সিং ধীরে ধীরে গতি পাচ্ছেন। একই সঙ্গে সম্পূর্ণ হতাশ হয়েছেন আবেশ খান। আভেশও যদি ফিট না হন, তাহলে প্লেয়িং 11-এ তার জায়গায় সুযোগ পেতে পারেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ট্যাগ: এশিয়া কাপ, বাবর আজম, ভারত বনাম পাকিস্তান, রবীন্দ্র জাদেজা, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি


Source link

About sarabangla

Check Also

বিশ্বের 5 ব্যাটসম্যান যারা সবচেয়ে বেশি বয়সে তাদের প্রথম ওডিআই সেঞ্চুরি করেছিলেন

হাইলাইট খুররম 43 বছর 162 দিনে তার প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেন সবচেয়ে বেশি বয়সে ক্যারিয়ারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *