Breaking News

গোসলের সর্বোত্তম উপায়: গরম না ঠাণ্ডা পানি কি গোসলের জন্য ভালো? জেনে নিন সত্যটা কী

হাইলাইট

স্নান শরীরকে শক্তি জোগাতে সাহায্য করে পাশাপাশি বিষণ্নতা, উদ্বেগ এবং চাপের মতো পরিস্থিতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে।
ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে শরীরে রক্ত ​​চলাচল দ্রুত হয়।

ঠান্ডা ঝরনা বনাম গরম ঝরনা: স্নান বা স্নান ভারতের প্রতিটি ব্যক্তির জন্য দৈনন্দিন রুটিনের একটি বাধ্যতামূলক অংশ। গোসল করবে না এমন কেউ কমই থাকবে। গোসলের পর শরীরে শক্তি আসে এবং আমরা সতেজ বোধ করি। এরপর সারাদিন কাজ করি। গোসল করা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। শক্তি তৈরির পাশাপাশি, এটি হতাশা, উদ্বেগ এবং চাপের মতো পরিস্থিতির সাথে লড়াই করতে সহায়তা করে। এটি মনকে শান্ত করে। কিন্তু যখন দেখা যায় কোন ধরনের পানিতে গোসল করলে উপকার হবে, তখন মানুষ প্রায়ই এই বিভ্রান্তিতে লিপ্ত থাকে যে ঠান্ডা পানি ঠিক না গরম পানি গোসলের জন্য ঠিক। আসলে, কিছু লোক বলে যে গরম জল আরও সঠিক, আবার কিছু লোক বলে যে ঠান্ডা জল আরও সঠিক। প্রকৃতপক্ষে, সত্যটি হল যে আপনি যেভাবেই গোসল করুন না কেন, এর যে কোনও বিষয়ে আপনার মতামত যাই হোক না কেন, তাদের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে আপনার সচেতন হওয়া উচিত। কোন পানি দিয়ে গোসল করা আপনার জন্য ভালো তাও জানা দরকার।

আরও পড়ুন- ডায়াবেটিস যত্ন: ডায়াবেটিস রোগীদের ডেঙ্গু বেশি হয়? নিজেকে এভাবে রক্ষা করুন

ঠান্ডা গোসলের উপকারিতা
ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে চুল থেকে প্রাকৃতিক তেল বেরিয়ে আসে। অর্থাৎ আপনার ত্বক যদি শুষ্ক থাকে তাহলে ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে বেশি উপকার পাওয়া যাবে। এতে ত্বক হাইড্রেটেড থাকবে। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসল করলে আমাদের হৃৎপিণ্ড খুব দ্রুত স্পন্দিত হতে থাকে। এতে শরীরে রক্ত ​​চলাচল ত্বরান্বিত হয়। অর্থাৎ রক্ত ​​সঞ্চালন দ্রুত করতে ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করা ভালো হবে। ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে বিষণ্ণতা দূর হবে। অর্থাৎ ঠাণ্ডা পানি হতাশাবিরোধী। ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে নরড্রেনালিন এবং বিটা এন্ডোরফিন নির্গত হয় যা মস্তিষ্কে বৈদ্যুতিক সংকেত পাঠায়। এতে মনে শান্তির অনুভূতি আসে।

গরম পানিতে গোসলের উপকারিতা
গরম পানিতে গোসল করলে আমাদের ত্বকের সব ছিদ্র খুলে যায়। এর ফলে শরীর বা ত্বকের সমস্ত টক্সিন ও ময়লা বেরিয়ে আসে। তাই ত্বক পরিষ্কার করার জন্য হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল করার পরামর্শ দেওয়া হয়। গরম পানিতে গোসলের পর ভালো করে ঘুমান। তাই ঘুমের সমস্যা থাকলে গরম পানিতে গোসল করুন। গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ক্লান্তি দূর হয়। এটি একজনকে শিথিল বোধ করে। গরম পানিতে গোসল করলে শরীরে অক্সিজেনের প্রবাহ ঠিকমতো হয়। তাই শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা হলে গরম পানিতে গোসল করা ভালো।

ট্যাগ: স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্য পরামর্শ, জীবনধারা, ট্রেন্ডিং খবর


Source link

About sarabangla

Check Also

খুব বেশি গুড় খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে, শীতকালে এটি সাবধানে খান, জেনে নিন এর ক্ষতিকর দিকগুলো

গুড়ের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া: মানুষ গ্রীষ্মের চেয়ে শীতকাল বেশি পছন্দ করলেও শীত এলেই নানা ধরনের রোগও দ্রুত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *