Breaking News

কাজের দুশ্চিন্তা ত্বকেও প্রভাব ফেলে, চাপমুক্ত ত্বকের জন্য এই টিপসটি অনুসরণ করুন

কাজের উদ্বেগ এবং চাপ ত্বকের উপর প্রভাব: এই দ্রুতগতির জীবনে দুশ্চিন্তা ও টেনশন থাকাটাই স্বাভাবিক। যদিও স্ট্রেস যদি কিছু সময়ের জন্য থাকে তবে এটি কেবল শরীরের ক্ষতি করে, তবে এটি যদি দীর্ঘ সময় ধরে থাকে তবে এটি পুরো শরীরকে প্রভাবিত করে। স্ট্রেস এবং উদ্বেগ শুধুমাত্র আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে না, এটি আমাদের ত্বককেও প্রভাবিত করে। কাজের দুশ্চিন্তার কারণে ত্বকে নানা ধরনের পরিবর্তন আসতে থাকে।

হেলথশট খবর অনুযায়ী, আপনার ত্বক নিজেই ইঙ্গিত করতে শুরু করে যে আপনি কাজের দুশ্চিন্তায় ভুগছেন বা মানসিক চাপ অনুভব করছেন। স্ট্রেস এবং উদ্বেগ নিয়ে গবেষণায় দেখা গেছে যে স্ট্রেস যত দীর্ঘস্থায়ী হবে, ত্বকে এর নেতিবাচক প্রভাব তত বেশি।

কাজের উদ্বেগ এবং ত্বকের মধ্যে সম্পর্ক
মস্তিষ্ক শরীরের সমস্ত অঙ্গের সাথে সম্পর্কিত। মস্তিষ্কে চাপ অন্যান্য অঙ্গেরও ক্ষতি করে এবং কাজের উদ্বেগের ত্বকও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মানসিক স্বাস্থ্যের অবস্থা যেমন স্ট্রেস, উদ্বেগ বা বিষণ্নতা ত্বকের নতুন সমস্যা বা বিদ্যমান সমস্যাগুলিকে আরও খারাপ করতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যখন কেউ মানসিক চাপে ভুগেন, সেই সময় শরীরে কর্টিসল এবং অ্যাড্রেনালিন নামক হরমোন দ্রুত তৈরি হয়। এই দুটি হরমোনই আমাদের ত্বকের গ্রন্থিতে তেলের উৎপাদন বাড়ায়। এটি ত্বকের ছিদ্রগুলিকে ব্লক করে এবং ব্রণের সমস্যা তৈরি করতে পারে। এই হরমোনগুলি ক্রমাগত বৃদ্ধি পায় যখন স্ট্রেস দীর্ঘস্থায়ী হয়, যা নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

উচ্চ লবণযুক্ত জিনিস খেলে মানসিক চাপ বাড়তে পারে, জেনে নিন কী বলছে গবেষণা

চাপের কারণে ত্বকের পরিবর্তন

এর পাশাপাশি মানসিক চাপ ত্বকের অভ্যন্তরীণ প্রদাহও বাড়িয়ে দিতে পারে

কাজের দুশ্চিন্তা শরীরে কর্টিসলের উৎপাদন বাড়ায়, যা ত্বকের গ্রন্থিতে সিবামের মাত্রা বাড়ায়, যার ফলে ব্রণ হয়।

– স্ট্রেস মানবদেহে উপস্থিত ইমিউন সিস্টেমকে ট্রিগার করে যার কারণে প্রতিক্রিয়া ক্রিয়া ঘটে। এটি আমাদের ত্বককে আরও সংবেদনশীল করে তোলে।

স্ট্রেস অন্ত্রে ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্যকেও প্রভাবিত করে।

স্ট্রেস প্রদাহের সমস্যাও বাড়ে, যা কখনও কখনও ফোসকা এবং ফুসকুড়ি আকারে দেখা দেয়।

শিশুদের মানসিক বিকাশের জন্য ভালো ঘুম প্রয়োজন, বয়স অনুযায়ী ঘুমের রুটিন ঠিক করুন
ত্বক রিলাক্স রাখার টিপস

একটি স্বাস্থ্যকর স্কিনকেয়ার রুটিন বজায় রাখুন
ত্বককে চাপমুক্ত রাখতে, আপনাকে ত্বকের যত্নের রুটিন তৈরি করতে হবে। শরীর হাইড্রেটেড রাখার চেষ্টা করুন। সময়ে সময়ে ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

একটি সুষম খাদ্য খাওয়া
সুস্বাস্থ্যের জন্য, আপনার দৈনন্দিন জীবনে সুষম এবং পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করা প্রয়োজন। প্রতিদিন তাজা ফল এবং শাকসবজি খান। প্রক্রিয়াজাত এবং চিনিযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন কারণ এগুলি কেবল আপনার ত্বককেই নয় সামগ্রিক স্বাস্থ্যকেও প্রভাবিত করতে পারে।

ভালোভাবে বিশ্রাম নিন
শুধু ভালো খাবার দিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়া যায় না। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া জরুরি। একটি ভাল ঘুমের সাথে, আপনি উদ্যমী থাকবেন এবং সারা দিন সতেজ বোধ করবেন।

শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকুন
ভালো ত্বকের জন্য, আপনার নিজেকে পুরোপুরি শারীরিকভাবে সক্রিয় রাখা প্রয়োজন, তাই প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম করা প্রয়োজন। ব্যায়াম করলে শরীরে রক্ত ​​সঞ্চালন ঠিক থাকে এবং এর ফলে ত্বক উজ্জ্বল থাকে।

ট্যাগ: দুশ্চিন্তা, স্বাস্থ্য, জীবনধারা


Source link

About sarabangla

Check Also

উচ্চ রক্তচাপ ভারতে হৃদরোগ এবং মৃত্যুর প্রধান কারণ, 75% রোগীর মধ্যে অনিয়ন্ত্রিত: ল্যানসেট রিপোর্ট

হাইলাইট দেশে উচ্চ রক্তচাপ আছে এমন রোগীদের ৭৫%-এরও বেশি ক্ষেত্রে এটি নিয়ন্ত্রণে নেই। এ কারণে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *