Breaking News

এমবিবিএস ছাত্র এবং হরিয়ানা সরকারের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের আলোচনার আরেকটি রাউন্ড ব্যর্থ হয়েছে

এমবিবিএস ছাত্র।

এমবিবিএস ছাত্র।
– ছবি: আমার উজালা

খবর শুনুন

বন্ড নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী এমবিবিএস ছাত্রদের হরিয়ানা সরকারের সঙ্গে দ্বিতীয় দফার আলোচনাও রবিবার ব্যর্থ হয়েছে। এই বিষয়ে, ছাত্রদের সমর্থনে, ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) সোমবার রাজ্য জুড়ে বেসরকারী হাসপাতালে ওপিডি এবং জরুরি অবস্থা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভারতীয় মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য সভাপতি ডাঃ পুনিয়া আসিজা বন্ড নীতি প্রত্যাহার করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন।

এমবিবিএস শিক্ষার্থীদের দাবি না মানা হলে আগামী ২৮ নভেম্বর বেসরকারি হাসপাতাল ওপিডি ও জরুরি পরিষেবা বন্ধ করে দেবে। সিএমও আধিকারিকদের সঙ্গে পাঁচ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে একবিন্দুতে একমত হতে না পেরে এখন আন্দোলন আরও তীব্র করার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

রোহতক পিজিআই এবং কর্নালের কল্পনা চাওলা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস ছাত্রদের অনশন চলছে। রোহতকে দুই ছাত্রের স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। একই সময়ে, গোহানার ভগত ফুল সিং (বিপিএস) মহিলা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস ছাত্রীদের বিক্ষোভ চলছে। হরিয়ানা সিভিল মেডিকেল সার্ভিসেস অ্যাসোসিয়েশনও ছাত্রদের আন্দোলনে যোগ দিয়েছে।

সিএমও কর্মকর্তারা বোঝাতে পারেননি
রোহতক থেকে শিক্ষার্থীরা বিকেল ৩টায় হরিয়ানা নিবাসে পৌঁছায়। তার সাথে ছিলেন পিজিআই রোহতকের ডিরেক্টর ডাঃ এস এস লোহচাব। মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ভি উমাশঙ্কর, অতিরিক্ত মুখ্য সচিব ডঃ অমিত আগরওয়াল, অতিরিক্ত মুখ্য সচিব চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণা জি অনুপমা এবং ডিএমইআর ডাঃ আদিত্য দাহিয়া বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের সাথে বৈঠক করেন। কোনো ঐকমত্যে পৌঁছানো যায়নি। এরপর রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত আবারও আলোচনা হয়। সরকার বা ছাত্ররা কেউই পিছু হটতে প্রস্তুত ছিল না। পিজিআই ও কল্পনা চাওলা মেডিকেল কলেজে ওপিডি পরিষেবা ইতিমধ্যেই ব্যাহত হওয়ায় এখন রোগীদের সমস্যা বাড়তে পারে।

সম্প্রসারণ

বন্ড নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারী এমবিবিএস ছাত্রদের হরিয়ানা সরকারের সঙ্গে দ্বিতীয় দফার আলোচনাও রবিবার ব্যর্থ হয়েছে। এই বিষয়ে, ছাত্রদের সমর্থনে, ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) সোমবার রাজ্য জুড়ে বেসরকারী হাসপাতালে ওপিডি এবং জরুরি অবস্থা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভারতীয় মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য সভাপতি ডাঃ পুনিয়া আসিজা বন্ড নীতি প্রত্যাহার করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন।

এমবিবিএস শিক্ষার্থীদের দাবি না মানা হলে আগামী ২৮ নভেম্বর বেসরকারি হাসপাতাল ওপিডি ও জরুরি পরিষেবা বন্ধ করে দেবে। সিএমও আধিকারিকদের সঙ্গে পাঁচ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে একবিন্দুতে একমত হতে না পেরে এখন আন্দোলন আরও তীব্র করার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

রোহতক পিজিআই এবং কর্নালের কল্পনা চাওলা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস ছাত্রদের অনশন চলছে। রোহতকে দুই ছাত্রের স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। একই সময়ে, গোহানার ভগত ফুল সিং (বিপিএস) মহিলা মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস ছাত্রীদের বিক্ষোভ চলছে। হরিয়ানা সিভিল মেডিকেল সার্ভিসেস অ্যাসোসিয়েশনও ছাত্রদের আন্দোলনে যোগ দিয়েছে।

সিএমও কর্মকর্তারা বোঝাতে পারেননি

রোহতক থেকে শিক্ষার্থীরা বিকেল ৩টায় হরিয়ানা নিবাসে পৌঁছায়। তার সাথে ছিলেন পিজিআই রোহতকের ডিরেক্টর ডাঃ এস এস লোহচাব। মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ভি উমাশঙ্কর, অতিরিক্ত মুখ্য সচিব ডঃ অমিত আগরওয়াল, অতিরিক্ত মুখ্য সচিব চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণা জি অনুপমা এবং ডিএমইআর ডাঃ আদিত্য দাহিয়া বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের সাথে বৈঠক করেন। কোনো ঐকমত্যে পৌঁছানো যায়নি। এরপর রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত আবারও আলোচনা হয়। সরকার বা ছাত্ররা কেউই পিছু হটতে প্রস্তুত ছিল না। পিজিআই ও কল্পনা চাওলা মেডিকেল কলেজে ওপিডি পরিষেবা ইতিমধ্যেই ব্যাহত হওয়ায় এখন রোগীদের সমস্যা বাড়তে পারে।




Source link

About sarabangla

Check Also

এয়ার ইন্ডিয়া: চার মাস ফ্লাইটে একজন মহিলার সাথে খারাপ আচরণের জন্য এয়ারলাইন শঙ্কর মিশ্রকে নিষিদ্ধ করেছে

এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইটে মহিলার প্রস্রাব করার অভিযোগে গ্রেফতার শঙ্কর মিশ্র – ছবি: আমার উজালা এয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *