All posts by Sara Bangla

BJP Calls for bandh: বিজেপি কর্মী খুনের প্রতিবাদে আজ বাগনানে ১২ ঘণ্টার বন্‌ধ – bjp calls for 12-hour bandh in bengal’s bagnan today in protest against party worker’s murder

হাইলাইটসবাগনানে বিজেপি কর্মী খুনের প্রতিবাদে ১২ ঘণ্টার বন্‌ধবিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত গুন্ডাদের হাতে খুন বিজেপি কর্মীঅভিযোগ অস্বীকার বাগনানের তৃণমূল বিধায়কেরপুলিশ জানাচ্ছে, জমি নিয়ে বিবাদের জেরে খুন বিজেপি কর্মী কিঙ্কর মাঝিদুই অভিযুক্তের একজন গ্রেফতার এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: দলীয় কর্মী কিঙ্কর মাঝি খুনের প্রতিবাদে আজ, বৃহস্পতিবার হাওড়ার বাগনানে ১২ ঘণ্টার বন্‌ধ ডেকেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপি। বুধবার জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। বিজেপির অভিযোগ, রাজনৈতিক কারণে খুন করা হয়েছে কিঙ্কর মাঝিকে। অভিযোগের আঙুল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। যদিও, তৃণমূল কংগ্রেস এই অভিযোগ অস্বীকার করে। ২৪ অক্টোবর বাড়ির কাছেই দুষ্কৃতীর গুলিতে নিহত হন কিঙ্কর মাঝি। বিজেপি কিঙ্করকে দলীয় কর্মী হিসেবে দাবি করে জানায়, শাসকদলের লোকজন রাজনৈতিক কারণে কিঙ্করকে খুন করেছে। যদিও, পুলিশ সূত্রে খবর, জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে খুন হয়েছেন কিঙ্কর মাঝি। এই খুনের সঙ্গে রাজনৈতিক যোগসূত্রের বিষয়টি পুলিশ মানেনি। জেলা পুলিশের এক কর্তা জানান, এই খুনের ঘটনায় দুই অভিযুক্তের মধ্যে একজনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর জন ফেরার। পুলিশ দ্বিতীয় জনকে গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে। জানা গিয়েছে, নিহত বিজেপি কর্মীর ফুলের ব্যবসা ছিল। বিজেপির অভিযোগ, বাগনানে গেরুয়া পার্টির প্রভাব বাড়ছে। যে কারণে তৃণমূল আশ্রিত গুন্ডারা কিঙ্কর মাঝিকে গুলি করে খুন করেছে। এই খুনের প্রতিবাদে বাগনানের মনসাতলা এলাকায় টায়ার জ্বালিয়ে লোকাল বিজেপি কর্মীরা এনএইচ-১৬ অবরোধ করেন। উলুবেড়িয়ার এসডিপিওর হস্তক্ষেপে জাতীয় সড়ক অবরোধ মুক্ত করা হয়।আরও পড়ুন: ভারতের হামলার ভয়েই কি বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দনকে ছাড়তে বাধ্য হয়েছিল পাকিস্তান?হাওড়া গ্রামীণের বিজেপি জেলা সভাপতি শিবশঙ্কর বেজের নেতৃত্বে বাগনান থানার সামনেও গেরুয়া কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। শিবশঙ্করের দাবি, মৃতের স্ত্রী এফআইআরে যাদের নাম উল্লেখ করেছে, তাদের গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়। রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু জানান, দলীয় কর্মী খুনের প্রতিবাদে বিজেপি রাজ্যে বিক্ষোভ প্রদর্শন করবে। আরও পড়ুন: ৮০% কোভিড রোগীর মধ্যে ভিটামিন-ডি’র ঘাটতি পেয়েছেন স্প্যানিশ গবেষকরাবাগনানের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক অরুণাভ সেনের অভিযোগ, বিজেপি রাজ্যে অশান্তি পাকাচ্ছে। মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছে। বিধায়কের দাবি, সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরেই উনি খুন হয়েছেন। এই খুনের সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে রাজ্যের শাসকদলের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলা হচ্ছে। এদিকে, ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলাকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। তাই দিন পনেরোর ব্যবধানে ফের এ রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা। বুধবার বিজেপির দলীয় একটি সূত্রে খবর, আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠন গোছাতেই দু’দিনে সফরে পশ্চিমবঙ্গে আসছেন জেপি নড্ডা। এর আগে ১৯ অক্টোবর উত্তরবঙ্গ সফরে এসেছিলেন বিজেপির জাতীয় সভাপতি। তবে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কবে রাজ্যে আসবেন তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

Source link

শীতে শুষ্ক ত্বকের যত্ন নিন ঘরোয়া উপায়ে, দেখুন কী করবেন | Winter Skin Care Tips, How To Protect Dry Skin


অ্যাভোকাডো ত্বকের যত্নে অ্যাভোকাডো অত্যন্ত উপকারি। অ্যাভোকাডো ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং ত্বক কোমল হয়ে ওঠে৷ তবে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে লাগালে আরও ভালো ফল পাবেন৷ গ্লিসারিন শুষ্ক ত্বকের জন্য গ্লিসারিন খুবই উপকারি। শুষ্ক ত্বকে গ্লিসারিন ব্যবহারের ফলে ত্বক খুব তাড়াতাড়ি কোমল হয়ে যায়। গ্লিসারিন ন্যাচারাল প্রোডাক্ট, যা ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে। দুধ বা দই রুক্ষ-শুষ্ক ত্বকে অনেক সময় জ্বালা বা চুলকানির মতো সমস্যা হয়৷ এক্ষেত্রে ঠান্ডা দই বা দুধে নরম কাপড় বা তুলো ভিজিয়ে ত্বকে পাঁচ মিনিট লাগিয়ে রাখুন৷ এতে করে ত্বকের জ্বালাভাব দূর হবে৷ এছাড়া, স্নানের আগে কাঁচা দুধের সঙ্গে মধু মিশিয়েও সর্বাঙ্গে লাগাতে পারেন৷ শুকিয়ে গেলে স্নান করে নিন৷ শীতে মুখের চামড়া শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে? সৌন্দর্য ফেরাতে ঘরেই তৈরি করতে পারেন এই ফেস মাস্কগুলি ল্যাকটিক অ্যাসিড ক্রিম ল্যাকটিড অ্যাসিডে অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মুখের কোলাজেন বজায় রাখতে সহায়তা করে। যার ফলে ত্বক স্বাস্থ্যকর এবং সতেজ দেখায়। তাই, ল্যাকটিক অ্যাসিড ব্যবহার করে ত্বকের শুষ্কতা থেকে স্বস্তি পেতে পারেন। অ্যালোভেরা অ্যালোভেরা জেল ত্বকের যত্নে খুবই উপকারি। অ্যালোভেরা জেল ত্বককে ময়েশ্চরাইজ করার পাশাপাশি, ত্বককে হাইড্রেটও রাখে। এছাড়া, ত্বকের জ্বালা এবং লালচেভাব দূর করতেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। পাকা কলা ও মধু ত্বককে রুক্ষ-শুষ্ক হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে, একটা পাকা কলার সঙ্গে পরিমাণমতো মধু দিয়ে একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন৷ এরপর এই প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। তারপর ময়েশ্চরাইজার লাগান৷ এটি নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ত্বক সফ্ট হবে৷

Source link

Mamata Banerjee Will Conduct Review Meeting At Nabanna On 5th November – প্রকল্প কত দূর! নবান্নে ৫ই মমতার পর্যালোচনা-বৈঠক

এই সময়: টানা ১৬ দিন ছুটির পর আগামী সোমবার, ২ নভেম্বর রাজ্য সরকারি অফিস খুলবে। আর বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দপ্তরগুলোর কাজকর্ম পর্যালোচনা করতে নবান্নে বৈঠক ডাকলেন।আগামী এপ্রিল-মে মাসে রাজ্যে বিধানসভা ভোট হওয়ার কথা। আগামী জানুয়ারির মধ্যে সরকারি প্রকল্পগুলো রূপায়ণের ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী আগেই বিভিন্ন দপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে এই বছর সরকারের আর্থিক টানাটানি রয়েছে। তাই, সরকারি প্রকল্পের কাজ কতটা এগিয়েছে, মন্ত্রীদের পারফরম্যান্স কেমন এবং সরকারি প্রকল্প রূপায়ণে কোনও সমস্যা আছে কি না, থাকলে কী সমস্যা, তা নিয়েই ৫ তারিখের বৈঠকে মন্ত্রী ও সচিবদের কথা সঙ্গে বলবেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্ন সভাঘরের ওই বৈঠকে সব মন্ত্রী, সচিব, বিভিন্ন দপ্তরের গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিক এবং জেলাশাসক, পুলিশ কমিশনার ও পুলিশ সুপারদের ভার্চুয়াল উপস্থিতির কথা বলা হয়েছে।প্রসঙ্গত, দুর্গাপুজোর প্যান্ডেলে দর্শনার্থীদের প্রবেশের উপর কলকাতা হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা কতটা কার্যকর হয়েছে, তা নিয়ে ৫ নভেম্বরই কলকাতার পুলিশ কমিশনার ও রাজ্য পুলিশের ডিজি আদালতে রিপোর্ট দেবেন। আবার প্রত্যেক পুজো কমিটিকে রাজ্য সরকার ৫০ হাজার টাকা দিয়েছে। আদালত ১৭ নভেম্বরের মধ্যে পুজো কমিটিগুলোকে ওই টাকা খরচের হিসেব অ্যাডভোকেট জেনারেলের কাছে দিতে বলেছে। যা পুলিশের মাধ্যমে দিতে হবে। ওই টাকা কেবল স্যানিটাইজার, মাস্ক কেনার জন্যই খরচ করতে হবে বলে জানিয়েছে হাইকোর্ট। নবান্ন সূত্রের খবর, এই নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকে আলোচনা হতে পারে।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা মতো থানা থেকে পুজো কমিটিগুলোকে ৫০ হাজার টাকার চেক বিলি করা হলেও তার খরচের হিসেব রাখার কোনও সরকারি নির্দেশিকা জারি করা হয়নি। তাই, পুজো কমিটিগুলো এখনও পর্যন্ত জানে না, সরকারকে এই টাকা খরচের হিসেব কী ভাবে দিতে হবে।

Source link

শীতে শুষ্ক ত্বকের যত্ন নিন ঘরোয়া উপায়ে, দেখুন কী করবেন | Winter Skin Care Tips, How To Protect Dry Skin


অ্যাভোকাডো ত্বকের যত্নে অ্যাভোকাডো অত্যন্ত উপকারি। অ্যাভোকাডো ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং ত্বক কোমল হয়ে ওঠে৷ তবে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে লাগালে আরও ভালো ফল পাবেন৷ গ্লিসারিন শুষ্ক ত্বকের জন্য গ্লিসারিন খুবই উপকারি। শুষ্ক ত্বকে গ্লিসারিন ব্যবহারের ফলে ত্বক খুব তাড়াতাড়ি কোমল হয়ে যায়। গ্লিসারিন ন্যাচারাল প্রোডাক্ট, যা ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে। দুধ বা দই রুক্ষ-শুষ্ক ত্বকে অনেক সময় জ্বালা বা চুলকানির মতো সমস্যা হয়৷ এক্ষেত্রে ঠান্ডা দই বা দুধে নরম কাপড় বা তুলো ভিজিয়ে ত্বকে পাঁচ মিনিট লাগিয়ে রাখুন৷ এতে করে ত্বকের জ্বালাভাব দূর হবে৷ এছাড়া, স্নানের আগে কাঁচা দুধের সঙ্গে মধু মিশিয়েও সর্বাঙ্গে লাগাতে পারেন৷ শুকিয়ে গেলে স্নান করে নিন৷ শীতে মুখের চামড়া শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে? সৌন্দর্য ফেরাতে ঘরেই তৈরি করতে পারেন এই ফেস মাস্কগুলি ল্যাকটিক অ্যাসিড ক্রিম ল্যাকটিড অ্যাসিডে অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মুখের কোলাজেন বজায় রাখতে সহায়তা করে। যার ফলে ত্বক স্বাস্থ্যকর এবং সতেজ দেখায়। তাই, ল্যাকটিক অ্যাসিড ব্যবহার করে ত্বকের শুষ্কতা থেকে স্বস্তি পেতে পারেন। অ্যালোভেরা অ্যালোভেরা জেল ত্বকের যত্নে খুবই উপকারি। অ্যালোভেরা জেল ত্বককে ময়েশ্চরাইজ করার পাশাপাশি, ত্বককে হাইড্রেটও রাখে। এছাড়া, ত্বকের জ্বালা এবং লালচেভাব দূর করতেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। পাকা কলা ও মধু ত্বককে রুক্ষ-শুষ্ক হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে, একটা পাকা কলার সঙ্গে পরিমাণমতো মধু দিয়ে একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন৷ এরপর এই প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। তারপর ময়েশ্চরাইজার লাগান৷ এটি নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ত্বক সফ্ট হবে৷

Source link

West bengal government news: বিনিয়োগ টানতে ঢালাও সংস্কারের পথেই বাংলা – West Bengal Govt Is On The Path Of Reform To Attract Investment

তাপস প্রামাণিকনতুন শিল্পস্থাপন তথা বিনিয়োগ আনতে পর পর দু’দফায় প্রায় এক দশকের শাসনে চেষ্টার কসুর করেনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। ব্যবসা ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আরও উদ্যোগ-বান্ধব পরিস্থিতি তৈরিতে দ্বিতীয় দফার শাসনের শেষ বেলায় আরও কিছু ইতিবাচক পদক্ষেপ করল মমতা সরকার। লাইসেন্স, অনুমোদন, নামপত্তন থেকে সরকারি ছাড়পত্রের পুনর্নবীকরণ আরও সহজ করতে অনলাইনে এক জানলা ব্যবস্থা আরও বিস্তৃত করছে সরকার। এ জন্য জরুরি প্রশাসনিক সংস্কারের কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। নতুন ব্যবসা শুরু করতে চেয়ে পুরসভা থেকে ট্রেড লাইসেন্স জোগাড়ে অনেকেই সমস্যায় পড়েন। কারখানার জমির মিউটেশন করাতে বা নিকাশি বা পানীয় জলের সংযোগ পেতেও বেগ পেতে হয়। এ বার থেকে ঘরে বসেই বিনিয়োগকারীরা যাতে এই সব সুবিধা পেতে পারেন, সেই লক্ষ্যেই আমূল প্রশাসনিক সংস্কারের পথে হাঁটছে রাজ্য সরকার। যাতে শিল্পস্থাপন কিংবা ব্যবসা শুরুর ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা কাটে এবং গোটা প্রক্রিয়া সরল হয়, রাজ্যকে বিনিয়োগকারীদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তোলা যায়। ২০২০-‘২১ অর্থবর্ষেই ‘ইজ অফ ডুয়িং বিজনেস’ নীতিতে বেশ কিছু নতুন পরিষেবা যুক্ত করছে সরকার। নবান্ন সূত্রের খবর, আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রতিটি দপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব। প্রত্যেক দপ্তরে চার-পাঁচ জন অফিসারকে নিয়ে ‘প্রোজেক্ট ম্যানেজমেন্ট ইউনিট’ গড়তে বলা হয়েছে। তারাই সমস্ত বিষয় দেখভাল করবে। শিল্পের জমির মিউটেশন এবং রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া এক সূত্রে বাঁধার মতো অভিনব পদক্ষেপও করেছে সরকার। জমি রেজিস্ট্রেশনের পর মিউটেশনের জন্য আর আলাদা আবেদন করতে হবে না। রেজিস্ট্রেশনের তথ্য চলে যাবে মিউটেশন কর্তৃপক্ষের কাছে। শুরু হয়ে যাবে মিউটেশন প্রক্রিয়া। এসএমএস বা মেলেই জেনে যাবেন জমির বর্তমান এবং আগের মালিক। ট্রেড লাইসেন্সের জন্যও একটি মাত্র আবেদনপত্র পূরণ করে অনলাইনে জমা দিলেই হবে। পুনর্নবীকরণও হবে একই ভাবে। বিজ্ঞাপনের হোর্ডিং লাগানো, সিনেমার শুটিং থেকে মোবাইল টাওয়ার বসানো, নির্মাণ সামগ্রী মজুত রাখা এবং জলের সংযোগ নেওয়াও অনলাইনে আবেদনেই হয়ে যাবে। রাজ্য সরকারের ‘শিল্পসাথী’ সিঙ্গল উইন্ডো সিস্টেমেই মিলবে সব পরিষেবা। এই অভিন্ন অনলাইন ব্যবস্থার মাধ্যমেই পুরসভা থেকে নির্মাণের নকশা অনুমোদন, কমপ্লিশন সার্টিফিকেট-সহ যাবতীয় ছাড়পত্র পাবেন বিনিয়োগকারীরা। মুখ্যসচিবের দপ্তরের চিঠিতে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকারের ‘ডিপার্টমেন্ট ফর প্রমোশন অফ ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড ইন্টারনাল ট্রেড’-এর বিচারে ২০১৯-‘২০ অর্থবর্ষে বাণিজ্যিক সংস্কারে সারা দেশে বাংলা ছিল নবম স্থানে। স্টেট বিজনেস রিফর্মস অ্যাকশন প্ল্যানের ১৮৭টি সংস্কার-সূচকের সবক’টিই অবশ্য কার্যকরী করেছিল রাজ্য। এ বার সে সংখ্যাটা বেড়ে হচ্ছে ৩০১। মার্চেন্ট চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল শুভাশিস রায়ের বক্তব্য, ‘ব্যবসার উপযোগী পরিবেশ গড়তে রাজ্য সরকারের এই ভূমিকা স্বাগত। বিভিন্ন প্রক্রিয়া অনলাইনে হলে সময় বাঁচাবে এবং অনেক সহজ হবে। রাজ্যের ভাবমূর্তিও উজ্জ্বল হবে। কোভিড-পরবর্তী পরিস্থিতিতে নতুন বিনিয়োগের পথও এতে সুগম হবে।’

Source link

শীতে শুষ্ক ত্বকের যত্ন নিন ঘরোয়া উপায়ে, দেখুন কী করবেন | Winter Skin Care Tips, How To Protect Dry Skin


অ্যাভোকাডো ত্বকের যত্নে অ্যাভোকাডো অত্যন্ত উপকারি। অ্যাভোকাডো ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং ত্বক কোমল হয়ে ওঠে৷ তবে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে লাগালে আরও ভালো ফল পাবেন৷ গ্লিসারিন শুষ্ক ত্বকের জন্য গ্লিসারিন খুবই উপকারি। শুষ্ক ত্বকে গ্লিসারিন ব্যবহারের ফলে ত্বক খুব তাড়াতাড়ি কোমল হয়ে যায়। গ্লিসারিন ন্যাচারাল প্রোডাক্ট, যা ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে। দুধ বা দই রুক্ষ-শুষ্ক ত্বকে অনেক সময় জ্বালা বা চুলকানির মতো সমস্যা হয়৷ এক্ষেত্রে ঠান্ডা দই বা দুধে নরম কাপড় বা তুলো ভিজিয়ে ত্বকে পাঁচ মিনিট লাগিয়ে রাখুন৷ এতে করে ত্বকের জ্বালাভাব দূর হবে৷ এছাড়া, স্নানের আগে কাঁচা দুধের সঙ্গে মধু মিশিয়েও সর্বাঙ্গে লাগাতে পারেন৷ শুকিয়ে গেলে স্নান করে নিন৷ শীতে মুখের চামড়া শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে? সৌন্দর্য ফেরাতে ঘরেই তৈরি করতে পারেন এই ফেস মাস্কগুলি ল্যাকটিক অ্যাসিড ক্রিম ল্যাকটিড অ্যাসিডে অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মুখের কোলাজেন বজায় রাখতে সহায়তা করে। যার ফলে ত্বক স্বাস্থ্যকর এবং সতেজ দেখায়। তাই, ল্যাকটিক অ্যাসিড ব্যবহার করে ত্বকের শুষ্কতা থেকে স্বস্তি পেতে পারেন। অ্যালোভেরা অ্যালোভেরা জেল ত্বকের যত্নে খুবই উপকারি। অ্যালোভেরা জেল ত্বককে ময়েশ্চরাইজ করার পাশাপাশি, ত্বককে হাইড্রেটও রাখে। এছাড়া, ত্বকের জ্বালা এবং লালচেভাব দূর করতেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। পাকা কলা ও মধু ত্বককে রুক্ষ-শুষ্ক হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করতে, একটা পাকা কলার সঙ্গে পরিমাণমতো মধু দিয়ে একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন৷ এরপর এই প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। তারপর ময়েশ্চরাইজার লাগান৷ এটি নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ত্বক সফ্ট হবে৷

Source link

Sukumar Hansda death: ক্যান্সারে প্রয়াত বিধানসভার উপাধ্যক্ষ সুকুমার হাঁসদা, শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর – Deputy Speaker Of West Bengal Legislative Assembly Sukumar Hansda Passed Away

হাইলাইটসপ্রয়াত হলেন রাজ্য বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার সুকুমার হাঁসদা। বৃহস্পতিবার সকালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: প্রয়াত হলেন রাজ্য বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার সুকুমার হাঁসদা। বৃহস্পতিবার সকালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। তাঁর প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে বেশ কিছুদিন ধরে ভর্তি ছিলেন রাজ্য বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার সুকুমার হাঁসদা। দীর্ঘ লড়াই শেষে এ দিন সকাল ১১.১৫-তে হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ২০১১ সালে ঝাড়গ্রাম বিধানসভার বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হন ডক্টর সুকুমার হাঁসদা। বাংলার পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন মন্ত্রী হিসেবে তাঁকে নিয়োগ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপরে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের পর ডেপুটি স্পিকারের পদ দেওয়া হয় সুকুমার হাঁসদাকে। সেই মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই প্রয়াত হলেন এই আদিবাসী নেতা।বিনিয়োগ টানতে ঢালাও সংস্কারের পথেই বাংলাতাঁর প্রয়াণে শোকবার্তা পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার উপাধ্যক্ষ ডঃ সুকুমার হাঁসদার প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি আজ কলকাতায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। ডঃ হাঁসদা তাঁর সারা জীবন আদিবাসীদের উন্নয়নব্রতে উৎসর্গ করেছিলেন। আদিবাসী আন্দোলনে ও আদিবাসী মানুষের কল্যাণসাধনে তাঁর ভূমিকা ও অবদান ছিল বিরাট। আদিবাসী সমাজের অভ্যন্তরে থেকে তিনি তাঁদের বিকাশে নিজের জীবন অতিবাহিত করেন। তিনি ঝাড়গ্রাম কেন্দ্র থেকে দু’বার বিধায়ক নির্বাচিত হন। পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রীর দায়িত্বও তিনি পালন করেছেন। আমি সুকুমার হাঁসদার পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’ডাকাডাকিতে কয়েকবার তাকিয়েছেন, তবু সংকটেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়সুকুমার হাঁসদার প্রয়াণে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এ দিন সব রাজ্য সরকারি অফিসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।নতুন ভারত লগ্নির নয়া গন্তব্য, একান্ত সাক্ষাৎকারে বললেন মোদীএই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

Source link

Onion oil recipe for hair growth : চুল পড়া কমাতে ব্যবহার করুন পেঁয়াজের তেল, দেখুন তৈরির পদ্ধতি


কীভাবে পেঁয়াজ তেল তৈরি করবেন? পেঁয়াজের তেল তৈরি করতে সর্বপ্রথমে পেঁয়াজের রস বার করুন। একটি প্যানে নারকেল তেল এবং পেঁয়াজের রস একসঙ্গে দিন। এটি ভালভাবে মিশ্রিত করুন এবং ঠান্ডা হওয়ার পরে, ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে নিন। এই তেলটি ছয় মাস পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারেন। পেঁয়াজের তেল ব্যবহারের পদ্ধতি চুলে পেঁয়াজের তেল লাগানোর জন্য চুলকে দুই ভাগে ভাগ করুন। এর পরে, আপনি চুলের গোড়ায় তেল লাগাতে শুরু করুন। হালকাভাবে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করুন। এটি সঠিক নিয়ম মেনে লাগালে চুল ঘন এবং নরম হয়। পেঁয়াজের তেল থেকে গন্ধ বেরোতে পারে, তবে এই তেলের অনেক উপকারিতা রয়েছে। পেঁয়াজের তেলের উপকারিতা পেঁয়াজের তেলের চুলকে গভীরভাবে কন্ডিশনিং করে। শুষ্ক চুলের জন্য পেঁয়াজের তেল খুবই উপকারি। পেঁয়াজের তেল প্রয়োগ করলে চুলের রুক্ষতা ভাব দূর হয় এবং চুলের গোড়াও মজবুত হয়। পেঁয়াজের তেল প্রয়োগ করে খুশকিও দূর হয়, চুল পড়াও কমে যায়। আপনি যদি চুলে বেশিক্ষণ তেল লাগিয়ে রাখতে না পারেন, তবে চুল ধোওয়ার কিছুক্ষণ আগে আপনি চুলে পিঁয়াজের তেল লাগিয়ে চুল ধুতে পারেন।

Source link

মহানবী (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে শেরপুরে মানববন্ধন

মুহাম্মদ আবু হেলাল, শেরপুর প্রতিনিধিঃ ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে শেরপুরে নিউমার্কেট প্রাঙ্গনে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মাদ্রাসার শিক্ষক, মসজিদের ইমাম সহ বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় বক্তারা ফ্রান্স সরকারের সহযোগিতায় বাক স্বাধীনতার নামে বহুল সমালোচিত ম্যাগাজিন শার্লি এবদো কর্তৃক মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে কার্টুন প্রচার করায় ফ্রান্সকে বয়কটসহ কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার আহবান জানান।

mamata Banerjee announced: করোনার কারণে এ বছর হচ্ছে না কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍‌সব, নয়া তারিখ ঘোষণা মমতার – Kolkata Film Festival Rescheduled For Coronavirus Pandemic, Mamata Banerjee Announced The New Date

হাইলাইটসএ বার করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়ল কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্‍‌সবের উপর। অতিমারী পরিস্থিতিতে মানুষের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এ বছর পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইট করে এ কথা ঘোষণা করেন তিনি। উত্‍‌সবের জন্য নতুন যে দিন ধার্য করা হয়েছে, তাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: এ বার করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়ল কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্‍‌সবের উপর। অতিমারী পরিস্থিতিতে মানুষের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এ বছর পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইট করে এ কথা ঘোষণা করেন তিনি। উত্‍‌সবের জন্য নতুন যে দিন ধার্য করা হয়েছে, তাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার দুপুরে ট্যুইট করে কলকাতা চলচ্চিত্র উত্‍‌সব পিছিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্‍‌সবের সব স্টেকহোল্ডার ও সমস্ত সিনেপ্রেমীদের জানাচ্ছি যে, আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র জগতের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আমাদের উত্‍‌সবের সময়ের পরিবর্তন করা হয়েছে। এটা এ বার হতে চলেছে ২০২১ সালের ৮-১৫ জানুয়ারি। আসুন, প্রস্তুতি শুরু করা যাক!’এ বছর উৎসবের ২৬তম বছর। নবান্ন সূত্রে খবর, উত্‍‌সবের প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। মুম্বইয়ে শাহরুখ খান, অমিতাভ বচ্চন-সহ নানা বিশিষ্ট অতিথির কাছে আমন্ত্রণ পৌঁছেও গিয়েছে। বিভিন্ন বিভাগে প্রতিযোগিতার জন্য ছবির নির্বাচনের কাজও প্রায় শেষ। বাংলার পক্ষ থেকে এ বার থাকছে অর্জুন চক্রবর্তী, দিতিপ্রিয়া রায় অভিনীত ‘অভিযাত্রিক’। আগে শোনা গিয়েছিল, করোনার কারণে এ বারের উৎসবে দেশ-বিদেশের অনেক অতিথিই আসবেন না। এমনিতেই বিশ্বের নামী চলচ্চিত্র উৎসবগুলি হয় পিছিয়ে গিয়েছে, নয় ভারচুয়ালি হয়েছে। MAMI বাতিল হয়েছে। গোয়ার উৎসব (IFFI Goa) পিছিয়ে গিয়েছে আগামী বছরের জানুয়ারিতে। পিছিয়ে গিয়েছে অস্কার ও বাফটাও। ৫ নভেম্বর থেকে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হওয়ার কথা ছিল। তা-ও এ বার পিছিয়ে দেওয়া হল। ক্যান্সারে প্রয়াত বিধানসভার উপাধ্যক্ষ সুকুমার হাঁসদা, শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীরকরোনার প্রকোপে এ বছর রাজ্যে দুর্গা পুজোও নমো নমো করে হয়েছে। হাইকোর্টের নির্দেশে প্যান্ডেলে ঢোকা বারণ ছিল। প্যানডেমিক পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে মানুষও বাইরে খুব একটা বের হননি। তাই এ বারের দুর্গাপুজোর বঙ্গের ছবিটা ছিল একেবারে আলাদা। এ বার আরও একটা উত্‍‌সবে কোপ পড়ল মারণ ভাইরাসের কারণে।ডাকাডাকিতে কয়েকবার তাকিয়েছেন, তবু সংকটেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

Source link