All posts by Sara Bangla

শেরপুরে ফাঁসিতে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা

মিজানুর রহমান, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি- শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার নয়াবিল ইউনিয়নের দাওয়াকুড়া গ্রামে ফাঁসিতে ঝুলে হামিদুল ইসলাম (২৬) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।

নিহত যুবক ওই গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে পুলিশ নিজ ঘর থেকে ওই যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার রাতের খাবার খেয়ে তার থাকার ঘরে ঘুমাতে যায় হামিদুল। রাতের কোন এক সময় ওই ঘরের আড়ার (ধন্নার) সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

এদিকে সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরী হলে পরিবারের লোকজন দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে হামিদুলের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে থানা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

হামিদুলের বাবা আলী হোসেন জানান, হামিদুলকে বিয়ে করানো হয়েছিল। তার স্ত্রীর সাথে বনাবনি না হওয়ায় দুই বছর আগে স্ত্রীর সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে। এরপর থেকেই হামিদুল কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। মিনহাজ নামে তার একজন চার বছর বয়সী ছেলে সন্তান রয়েছে।

এ ব্যাপারে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) ওয়াহেদ জানান, হামিদুলের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মানসিক ভারসাম্যহীনতার কারনে হামিদুল আত্মহত্যা করেছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে কোন প্রকার আপত্তি না থাকায় লাশ বিনা ময়নাতদন্তে দাফন ও একটি অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বলি বাজ: আনুশকা শর্মা এবং বিরাট কোহলির তাদের বাচ্চা মেয়েকে স্বাগত জানানোর পরে প্রথম উপস্থিতি; সেলিব্রিটিরা তাঁর জন্মবার্ষিকীতে সুশান্ত সিং রাজপুতকে স্মরণ করেন | হিন্দি মুভি সংবাদ

বিরাট কোহলি এবং আনুশকা শর্মা সন্তানের জন্মের পর থেকে বরুণ ধাওয়ানের গোপন বিবাহের অবস্থান এবং তারকাদের জন্মবার্ষিকীতে সুশান্ত সিং রাজপুতকে স্মরণ করে সেলিব্রিটিদের প্রথমবারের মতো বড় উপস্থিতি, আপনার যা জানা দরকার তা এখানে। ইটাইমস একটি নতুন বিভাগে বলি বাজ এনেছে যা সংবাদ এবং গসিপের সাধারণ মিশ্রণের বাইরে চলে যায় এবং এটির সমস্ত পাঠককে দিনের ট্রেন্ডিং স্টোরিগুলির একদল গোল দেয়।

ভক্ত, পরিবারের সদস্য এবং ভ্রাতৃত্বের বন্ধুরা সুশান্তকে তার জন্মবার্ষিকীতে আজ স্মরণ করেছেন। এটি পুরানো ছবিগুলি বা তার সেরা সংলাপ বা গানগুলি ভাগ করে নেওয়া, ভক্তরা নিশ্চিত করেছেন যে # সুশান্তডে সমস্ত সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে উচ্চতর ট্রেন্ড করছে। এমনকি তাঁর বোন শ্বেতা এবং প্রিয়াঙ্কা তাঁর বিশেষ দিনে সংবেদনশীল পোস্টগুলি ভাগ করেছেন।
নতুন বাবা-মা বিরাট কোহলি এবং আনুশকা শর্মা তাদের বাচ্চা মেয়েকে স্বাগত জানানোর পর থেকে প্রথম উপস্থিত হন। দু'জনকে শহরের একটি ক্লিনিকে ঘুরে দেখা গেছে। এমনকি দম্পতি তাদের বাচ্চার ছবিতে ক্লিক না করার জন্য অনুরোধ করার পরেও তারা তাদের গোপনীয়তার প্রতি সম্মান জানিয়ে পাপারাজ্জিকে ধন্যবাদ জানায়।

বরুণ ধাওয়ানের বড় বিয়ের একটি আকর্ষণীয় আপডেট এখানে। আমাদের সূত্র অনুসারে, আলিবাগের দৃষ্টিনন্দন ম্যানশন হাউসে বরুণ নাতাশার সাথে গাঁটছড়া বাঁধবেন। বিলাসবহুল 25-রুমের রিসর্টটি আলিবাগ জেটি থেকে মাত্র 10 মিনিটের ড্রাইভ। দাম্পত্য দম্পতি এবং তাদের পরিবার ২২ জানুয়ারি একটি সংগীত দিয়ে শুরু হওয়া ২৪ জানুয়ারি এবং তারপরে ২৪ শে জানুয়ারি বিবাহের উদযাপনের জন্য ২২ জানুয়ারি সড়ক পথে অনুষ্ঠানস্থলে যাবেন।
জাভেদ আক্তারের দায়ের করা মানহানির মামলায় কঙ্গনা রানাউতকে এখন সমন জারি করা হয়েছে। প্রবীণ লেখক-গীতিকার 2020 সালের নভেম্বরে হৃতিক রোশনের সাথে তার বিপরীতে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানিকর ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করার অভিযোগে কঙ্গনার বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। একই কঙ্গনার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে টুইট করেছিলেন, "আজ আমার জন্য আরও একটি তলব করা হয়েছে। আসুন সমস্ত হায়েনা একত্রিত হোন … আমাকে কারাগারে রাখুন … আমাকে নির্যাতন করুন এবং ৫০০ মামলা দিয়ে আমাকে দেয়ালের বিরুদ্ধে চাপিয়ে দিন … আসুন।"
অন্যদিকে সোনু সুদ নিজেকে আরও আইনী সমস্যায় ফেলেছিলেন কারণ বোম্বাই হাইকোর্ট নগর দেওয়ানি আদালতের যে আদেশটি চ্যালেঞ্জ করেছিলেন তার আবেদন খারিজ করে দিয়েছিল যে জুহুর একটি আবাসিক ভবনে কাঠামোগত পরিবর্তনের জন্য তার বিরুদ্ধে বিএমসির নোটিশের বিরুদ্ধে তার আবেদন বাতিল করা হয়েছিল। অনুমতি
অজয় দেবগনের চলচ্চিত্র ‘থ্যাঙ্কস গড’ এর শুটিং আজ মুম্বাইয়ে শুরু হয়েছিল। ইন্দ্র কুমার পরিচালিত স্লাইস অফ লাইফ কমেডিটিতে আরও অভিনয় করবেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও রাকুল প্রীত সিং।
রচনা: ক্যারেন পেরেরা
ভয়েস ওভার: শর্লি থাচিল
সম্পাদনা: যোগেশ জয়শ্বর

কথা রাখলেন মমতা, পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে ট্যাবের টাকা পাঠাতে শুরু করল রাজ্য

সারাবাংলা ডেস্ক: ঘোষণা মতোই বৃহস্পতিবার থেকে পড়ুয়াদের ট্যাবের টাকা দেওয়া শুরু করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ভারচুয়াল অনুষ্ঠানে কথা বললেন পড়ুয়াদের সঙ্গে। পাশাপাশি, উদ্বাস্তুদের জমির পাট্টা দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।
পড়ুয়াদের স্বার্থে আগেই সাড়ে ৯ লক্ষ ট্যাব দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পরবর্তীতে এত ট্যাব জোগাড়ে সমস্যা হওয়ায় পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতো আবেদন করেছিলেন দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়ারা। বৃহস্পতিবার থেকে টাকা পাঠানো শুরু করল সরকার। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন আগামী তিনদিনের মধ্যে সমস্ত পড়ুয়াই টাকা পেয়ে যাবে। এদিন পড়ুয়াদের সঙ্গে কথাও বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁদের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ট্যাবটি যত্নে রাখার পরামর্শ দেন তিনি। বলেন, “স্মার্টফোন বা ট্যাব অত্যন্ত কাজের জিনিস। সাবধানে রাখবে। এগিয়ে যাও।” মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যের এই সহযোগিতায় আপ্লুত পড়ুয়ারাও।  
[আরও পড়ুন: নেতাজির জন্মদিনে ভিক্টোরিয়ায় চাঁদের হাট, মোদির মঞ্চে গাইবেন ঊষা উত্থুপ-পাপন-সোমলতা]
এদিন নবান্ন থেকে উদ্বাস্তু সমস্যা নিয়ে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। জানান, সমস্ত উদ্বাস্তুদের জমির পাট্টা দেওয়া হবে। এদিন ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির ব্যাপক সাফল্যের কথাও জানান তিনি। বলেন, “দুয়ারে সরকার ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। বহু মানুষ সুবিধা পেয়েছেন। যাতে আরও মানুষ এই কর্মসূচির সুবিধা পান সেই কারণেই ২৭ জানুয়ারি থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পঞ্চম দফায় এই কর্মসূচি চলবে।” মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে প্রায় ১৫ লক্ষ বিধবা ভাতার আবেদন জমা পড়েছে। দ্রুতই আবেদনকারীরা টাকা পাবেন। সেইসঙ্গে স্বাস্থ্যসাথীর ভুলত্রুটি সংশোধনে মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হবে বলেও জানান তিনি।
[আরও পড়ুন: ‘মানহানিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, শোভন চট্টোপাধ্যায়কে আইনি নোটিস কুণাল ঘোষের ]

Source link

TMC MLA Rabindranath Bhattacharya’s son to joins BJP ।Sangbad Pratidin

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 21, 2021 5:44 pm|    Updated: January 21, 2021 5:47 pm
দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: বিধানসভা নির্বাচনের (Assembly Election 2021) আগে এবার সিঙ্গুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের বাড়িতেও ফুটতে চলেছে পদ্ম। কারণ, গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন বিধায়ক পুত্র তুষার ভট্টাচার্য। কবে আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্ম শিবিরে নাম লেখাবেন, সেকথাও জানালেন তিনি।বুধবার চন্দননগরে (Chandannagar) একটি সভা ছিল সদ্য দলবদলকারী শুভেন্দু অধিকারীর। ওই মঞ্চ থেকে সিঙ্গুরের ‘মাস্টারমশাই’ রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের (Rabindranath Bhattacharya) ছেলের কথা তোলেন তিনি। ফোন করে বিধায়ক পুত্র তুষার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন বলেই জানান। সেকথায় সিলমোহর দিলেন খোদ তুষার। বিজেপিতে যোগ দেবেন বলেই জানালেন। কবে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেবেন তুষার? তিনি বলেন, “বাবার মাধ্যমেই শুভেন্দুদার সঙ্গে আমার যোগাযোগ। উনি যখন বিজেপিতে যোগ দিলেন তখন আমিও আমার ইচ্ছার কথা বলেছি। উনি রাজিও হয়েছেন। শুভেন্দুদা যেদিন সিঙ্গুরে সভা করতে আসবেন সেদিনই আমি বিজেপিতে যোগ দেব।” তাঁর দাবি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) তৎপরতায় ভারতে যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে সেটাই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার মূল অনুপ্রেরণা।[আরও পড়ুন: দলের মহিলা কর্মীকে ‘কুপ্রস্তাব’, অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে পঞ্চায়েত অফিসে বিক্ষোভে বিজেপি]তবে এর পাশাপাশি আরেকটি কারণ রয়েছে বলেও দাবি তুষারের। বাবা রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য তৃণমূলে (TMC) যথেষ্ট সম্মান পাননি বলেও দাবি তাঁর। দাবি, ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যকে মন্ত্রী করা হয়। তবে বর্তমানে তাঁর বাবার সঙ্গে ঘাসফুল শিবিরের ‘দূরত্ব’ তৈরি হয়েছে। সেই অভিমান থেকে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত বলেও জানান তুষার। রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যও কি তবে দলবদল করতে চলেছেন, সেই প্রশ্ন ইতিমধ্যেই মাথাচাড়া দিতে শুরু করে। যদিও এ বিষয়ে তুষারের (Tushar Bhattacharya) দাবি, তাঁর বাবার যথেষ্ট বয়স হয়েছে। তাই বাবা রাজনীতি থেকে সরে আসুন, তেমনটাই চান বিধায়ক পুত্র। তবে এই মুহূর্তে রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নেওয়ার কোনও সিদ্ধান্ত নেই সিঙ্গুরের বিধায়কের। দলবদল করে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর কথাও ভাবেননি বলেই শোনা যাচ্ছে।[আরও পড়ুন: পার্টি অফিসে ভাঙচুর-গাড়িতে আগুন, বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে উত্তপ্ত বর্ধমান]

Source link

japanese water therapy: ওজন কমাতে খাওয়া-দাওয়া সব ছেড়ে দিয়েছেন? কষ্ট না করে ভরসা রাখুন জাপানি ওয়াটার থেরাপি! – this japanese water therapy is the key to losing weight and staying healthy

হাইলাইটসশরীরের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে সচল রাখতে জলের গুরুত্বের কথা কমবেশি সকলেই জানেন। বিশেষত গরমকালে ডিহাইড্রেশন এড়াতে, শরীরকে তরতাজা রাখতে সারাক্ষণই জল খাওয়ার নিদান দেন চিকিৎসকেরা। এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: শরীরের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে সচল রাখতে জলের গুরুত্বের কথা কমবেশি সকলেই জানেন। বিশেষত গরমকালে ডিহাইড্রেশন এড়াতে, শরীরকে তরতাজা রাখতে সারাক্ষণই জল খাওয়ার নিদান দেন চিকিৎসকেরা। কিন্তু তা বলে ওজন কমানোর জন্য জলের থেরাপি? হলফ করে বলা যায়, কস্মিনকালেও বাঙালি শোনেনি এমনটা। শুনবেই বা কী করে, এই থেরাপির জন্ম তো সেই সুদূর জাপানে! জাপানি মতে ঠিক সময়ে ঠিক পরিমাণ জল খেলে শরীরের মেটাবলিজম রেট বেড়ে যায়। ফলে বেশি ক্যালোরি ঝরিয়ে সহজেই অতিরিক্ত ওজন কমাতে পারবেন। জেনে নিন ওয়াটার থেরাপির পাঁচটি সহজ পদ্ধতি।হ্যাঁ, নেহাত কথার কথা নয়, ছিপছিপে জাপানিরা দীর্ঘকাল ধরেই রোগা হওয়ার দাওয়াই হিসেবে এই জলের টোটকা ব্যবহার করে আসছে। ঈষদুষ্ণ জলে লেবু আর মধু ফেলে খাওয়া, এই অভ্যাস বাঙালির রয়েছে। তাতে কাজও হয়। এই থেরাপিতে প্রধান লক্ষ্য থাকে, জলের ব্যবহারে পাকস্থলীকে যাতে সব থেকে ভাল কাজের অবস্থায় পৌঁছে দেওয়া যায়। একই সঙ্গে লক্ষ্য থাকে হজম শক্তি ফিরিয়ে আনার এবং শরীরের সমস্ত অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করার। প্রায় একশো বছরের বেশি সময় ধরে জাপানিরা এই টোটকায় বিশ্বাস রেখে আসছে। ফলও মিলছে হাতেনাতে। দেখে নিন সেগুলি-* সকালে উঠেই আগে ৪-৫ গ্লাস জল খান। এর ফলে শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বেরিয়ে যাবে। খালি পেটে ঠান্ডা জল নয়, হালকা গরম খাওয়াই ভালো।* এরপর ব্রাশ করে মুখ ধুয়ে আধঘণ্টা থেকে ৪৫ মিনিট পর্যন্ত কিছুই খাবেন না বা পান করবেন না। খুব প্রয়োজন হলে একটু জল খেতে পারেন।* খাবার খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর পর্যন্ত জল খাওয়া একেবারেই চলবে না।সবজি হিসেবে গুণের শেষ নেই! জানুন বেগুনের হাজারো উপকারিতা…* যাদের শরীর ভালো নয়, তাঁরা সকালে উঠে এক গ্লাস জল দিয়ে শুরু করুন। ধীরে ধীরে জল খাওয়ার পরিমাণ বাড়াবেন।* দাঁড়ানো অবস্থায় কিছু খাবেন না বা পান করবেন না।* শারীরিক কোনও সমস্যা থাকলে বা বার্ধক্যজনিত কারণে হঠাৎ করে সকালে অনেকেই হয়তো চার গ্লাস জল একবারে খেতে পারবেন না। সে ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে জলের পরিমাণ বাড়ান। প্রথমে শুরু করুন সকালবেলা বাসি মুখে এক গ্লাস জল দিয়ে।সুগার লেভেল কি বেড়েছে? জলের সঙ্গে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে পান করুন, উপকার পাবেন…* এই ওয়াটার থেরাপি মেনে চললে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে শরীরে পরিবর্তন টের পাবেন। আপনার হজম ক্ষমতা অনেকটাই বেড়ে যাবে। এর ফলে আপনি অতিরিক্ত ওজন কমাতে পারবেন।এই সময় ডিজিটালের লাইফস্টাইল সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।

Source link

ভূঞাপুর পৌর নির্বাচনঃ সকালে ব্যালট সামগ্রী পাঠাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর আবেদন

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌরসভা নির্বাচনে পূর্বের রাতেই ব্যালট বইসহ সকল সামগ্রী ছিনতাইয়ের আশংঙ্কায় ব্যালটসহ নির্বাচনী সামগ্রী নির্বাচনের দিন সকালে কেন্দ্রেগুলোতে পাঠাতে লিখিত আবেদন করেছে স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) প্রার্থী প্রার্থী আব্দুস সাত্তার।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদনে জানান তিনি, যেকোন দুষ্কৃতিকারী নির্বাচনের পূর্বের রাতেই ব্যালট বইসহ ব্যালট সামগ্রী ছিনতাই, বিনষ্ট বা ক্ষতি করতে পারে। এতে সাধারণ ভোটারসহ আমরা প্রার্থীরা ক্ষতিগ্রস্থ হব। এজন্য নির্বাচনের দিন সকালে কেন্দ্রগুলোতে ব্যালট বইসহ সকল সামগ্রী প্রেরণ করলে নিরাপদ ও শংঙ্কামুক্ত হবে।

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আব্দুস সাত্তার বলেন, নির্বাচনের আগের রাতেই ব্যালট বইসহ নির্বাচনী সামগ্রী ছিনতাই হতে পারে এই আশংঙ্কায় নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদন করা হয়েছে যাতে নির্বাচনের দিন সকালে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী সামগ্রী কেন্দ্রগুলোতে পাঠাতে। এছাড়া গতকাল রাতে নৌকা প্রতীকের কর্মীরা আমার জগ মার্কার পোস্টার ছিড়ে ফেলেছে। পৌরসভার চরবামন হাটা এলাকায় জগ মার্কার সকল পোস্টার তারা ছিড়ে ফেলেছে।

অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মুহাম্মদ মোশারফ হোসেন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর লিখিত আবেদন পেয়েছি। এই বিষয়ে বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী (৩০ জানুয়ারি) ভূঞাপুর পৌরসভায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৩০ জন কাউন্সিলর ও ১১ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২১ হাজার ৭২৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৮৪৫ ও মহিলা ভোটার ১০ হাজার ৮৮৪ জন। আগামী ৩০ জানুয়ারি এই পৌরসভার ১০টি কেন্দ্রে ৫৭টি ভোট কক্ষে ভোটাররা ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

এক্সক্লুসিভ! 'এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি' অভিনেতা আশ্রুত জৈন: সুশান্ত সিং রাজপুত তাঁর জন্মদিনে অনুদান দিতেন | হিন্দি মুভি সংবাদ

সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্মবার্ষিকী আজ সোশ্যাল মিডিয়া ক্রিয়াকলাপের এক ঝাঁকুনির সাথে চিহ্নিত হয়েছে। পরিবার, বন্ধুবান্ধব, সহশিল্পী এবং প্রয়াত অভিনেতার ভক্তরা তাঁর সাথে কাটানো সময় এবং স্মরণে শ্রদ্ধা নিবেদন করে যাচ্ছেন is সুশান্তের ২০১ 2016 সালে নির্মিত চলচ্চিত্র 'এম.এস. ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরির সহশিল্পী আশ্রুত জৈন, নীরজ পান্ডয়ের জীবনী নাটকে স্কুল দলের অধিনায়ক শব্বির হুসেনের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন, বায়োপিক নিয়ে বড় রান করেছেন এমন অভিনেতা সম্পর্কে কথা বলার জন্য ওয়াক ডাউন মেমোরি লেন নিয়েছিলেন।

একচেটিয়াভাবে ইটাইমস-এর সাথে কথা বললে, তিনি বলেছিলেন, '' আমি বেঁচে থাকি যদি তিনি বেঁচে থাকতেন এবং পুরোপুরি জীবনযাপন করতেন? আমরা সকলেই জানি পৃথিবীটি ন্যায্য স্থান নয় তবে এটি একটি আনন্দের জায়গা হওয়া উচিত। '' যখন তাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে কীভাবে সুশান্ত তাঁর জন্মদিন উদযাপন করেছেন, তিনি প্রকাশ করেছিলেন, '' আমি কেবল জানি যে তিনি তাঁর জন্মদিনে অনুদান দিতেন। তিনি যখন পার্টি করতেন এবং তার কাছের মানুষদের সাথে থাকতে পছন্দ করতেন তখন তিনি জীবন পূর্ণ ছিল। তবে তিনি যখন কাজ করছিলেন তখন তার সেরা জন্মদিন সেটে ছিল।

আশ্রুত বিশ্বাস করেন যে সুশান্ত তার জীবনের যাত্রা নিয়ে উচ্চাকাঙ্ক্ষী অভিনেতাদের জন্য একটি উদাহরণ স্থাপন করেছেন। তিনি আরও অনুভব করেন যে প্রত্যেককে অবশ্যই সৃজনশীল জন্মদিনকে ‘ক্রিয়েটিভ ডে’ হিসাবে, সমস্ত সৃজনশীল মানুষের শ্রদ্ধা হিসাবে পালন করতে হবে।

Pirzada Abbas Siddique launches Indian Secular Front in Kolkata

সারাবাংলা ডেস্ক: রাজ্যে নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ। প্রত্যাশামতোই নতুন দলের ঘোষণা করলেন পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকি। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে সেই দলের নাম ও পতাকা প্রকাশ্যে আনলেন তিনি। মূলত সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের কাছে উন্নয়ন পৌঁছে দিতেই এই দল গড়া বলে জানান আব্বাস।২০১৯ সাল থেকে রাজ্যে রাজনৈতিক ভাবে সক্রিয় হয়েছেন আব্বাস। গঠন করেন ফুরফুরা শরীফ আহালে সুন্নাতুল জন্নত নামে একটি সংগঠন। ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে রাজনৈতিক বার্তা দিয়েছেন তিনি। প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়েছিল, তৃণমূলের সমর্থনে নির্বাচনে লড়াই করবেন তিনি। তাঁকে দলে টানতে চেয়ে পীরজাদার দ্বারস্থ হয়েছিলেন বাম ও কংগ্রেস। কিন্তু তাতেও সাড়া মেলেনি। শেষে ওয়েইসির সমর্থনে নির্বাচনে লড়াইয়ের কথা জানান পীরজাদা। এরপরই আজ দল গঠনের ঘোষণা করলেন তিনি। [আরও পড়ুন : রাম মন্দির তহবিলে অর্থসাহায্য চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি VHP’র, অনুদান দিলেন রাজ্যপাল ]়আব্বাস সিদ্দিকির নয়া দলের নাম  ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (ISF)। তাদের পতাকায় রয়েছে দুটি রঙ। নীল এবং সবুজ। তবে দলের প্রতীক এখনও সামনে আনেননি তিনি। দলের চেয়্যারম্যান হয়েছেন আব্বাসের ভাই নৌসাদ সিদ্দিকি। মূলত রাজ্যের মুসলিম অধ্যুষিত জেলাগুলিতেই প্রার্থী দেবেন তাঁরা। আব্বাসের পাখির চোখ দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলির, নদিয়ার একাংশ। West Bengal: Pirzada Abbas Siddique, the founder of Furfura Sharif Ahale Sunnatul Jamat, launches Indian Secular Front (ISF) in Kolkata. pic.twitter.com/rqwTYn1UJZ— ANI (@ANI) January 21, 2021ফুরফুরা শরীফের পীরজাদার বাঙালি মুসলিম ও সংখ্যালঘু যুব সম্প্রদায়ের উপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব রয়েছে। মগরাহাট. ক্যানিং, আমতলা, ডায়মন্ডহারবার-সহ হাওড়া-হুগলির মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় বিভিন্ন সময় ধর্মীয় সভা, জলসা করেন আব্বাস সিদ্দিকি। গত কয়েকমাস যাবৎ সেই সমস্ত অনুষ্ঠান থেকে রাজনৈতিক বার্তা দিয়েছেন তিনি। এবার নিজের দল গড়লেন তিনি। জানিয়েছেন, “অনেকেই আছে যাঁরা নিজেদের নিরপেক্ষ বলেন। কিন্তু আদপে কাজে তা প্রমাণিত হয় না। শুধু মুসলিম নয়, হিন্দু সমাজেরও বহু পিছিয়ে পড়া মানুষ আছেন।” তাঁদের কাছে উন্নয়ন পৌঁছে দিতেই এবার বিধানসভা নির্বাচনে অংশ নেবেন তিনি। ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা, ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট নির্বাচনে লড়াই করলে অন্যান্য দলের ভোটব্যাংকে সরাসরি তার প্রভাব পড়বে। [আরও পড়ুন : ‘মানহানিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, শোভন চট্টোপাধ্যায়কে আইনি নোটিস কুণাল ঘোষের]

Source link

দলের মহিলা কর্মীকে ‘কুপ্রস্তাব’, অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে পঞ্চায়েত অফিসে বিক্ষোভে বিজেপি

বাবুল হক, মালদহ: জব কার্ড চাইতে যাওয়ায় বিজেপির মহিলা কর্মীকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল পঞ্চায়েতের সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে। থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন নিগৃহীতা। পরবর্তীতে জোর পূর্বক অভিযোগ প্রত্যাহার করানো হয়েছে, এই অভিযোগ তুলে বিক্ষোভে শামিল বিজেপি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত মালদহ (Maldah)।
ঘটনার সূত্রপাত বেশ কিছুদিন আগে। জব কার্ড চাইতে যাওয়ায় মালদহের এক মহিলা বিজেপি কর্মীকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল যদুপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে। ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন ওই বধূ। এরপরই অভিযুক্ত সুপারভাইজার অমল মণ্ডলকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল। অভিযোগ, এরপর থেকেই অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য নিগৃহীতাকে চাপ দেয় অভিযুক্ত অমল। চাপে পড়ে নিগৃহীতা অভিযোগ তুলে নেয়। এরপর পুনরায় অমল মণ্ডলকে কাজে বহাল করে ব্লক প্রশাসন। তারই প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার পঞ্চায়েত দপ্তরের সামনে বিক্ষোভে বসেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা।
[আরও পড়ুন: বঙ্গ সফরে এসে ইসকন মন্দিরে যাবেন শাহ, যোগ দিতে পারেন বিজেপির রথযাত্রাতেও]
যদুপুর ২নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপি সদস্য সনাই মণ্ডলের অভিযোগ, অভিযুক্ত সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ থাকা স্বত্বেও ব্লক আধিকারিক পুনরায় তাকে কাজে বহাল করেছেন। আইনানুগ কোনও ব্যবস্থা নেননি। বিজেপির মহিলা নেত্রী সুতপা চট্টোপাধ্যায় বলেন, অভিযুক্ত সুপারভাইজারকে চাকরি থেকে বরখাস্ত না করা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে উত্তপ্ত পঞ্চায়েত অফিস। বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। জানা গিয়েছে, পলাতক অভিযুক্ত।
[আরও পড়ুন: ‘স্বাস্থ্যসাথী কার্ড তৃণমূলের ভোট কার্ড’, প্রকল্পের সাফল্য নিয়ে তৃণমূলকে আক্রমণ শুভেন্দুর]

Source link

Carbon footprint: ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভিডিয়ো কনফারেন্স! অজান্তেই ডেকে আনছেন হাজার বিপদ… – leaving camera on during video calls, streaming videos in hd increases your carbon footprint, study finds

হাইলাইটসকরোনার জেরে কাজের ক্ষেত্রে একাধিক পরিবর্তন এসেছে। করোনা সতর্কতায় এখনও বেশিরভাগ সংস্থাই ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ চালু করেছে। ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে বাড়ি থেকেই কাজ করছেন বহু মানুষ। অফিস বাড়িতে চলে আসার কারণেই ঘরের ভিতর উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এসেছে। বাড়ি বসে কাজ করা, ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভিডিয়ো কনফারেন্সে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন সকলে। এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার জেরে কাজের ক্ষেত্রে একাধিক পরিবর্তন এসেছে। করোনা সতর্কতায় এখনও বেশিরভাগ সংস্থাই ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ চালু করেছে। ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে বাড়ি থেকেই কাজ করছেন বহু মানুষ। অফিস বাড়িতে চলে আসার কারণেই ঘরের ভিতর উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এসেছে। বাড়ি বসে কাজ করা, ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভিডিয়ো কনফারেন্সে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন সকলে। কিন্তু এই এই ভিডিয়ো কনফারেন্সের ফলে প্রচুর পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। এক গবেষণায় তেমনই প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এক ঘণ্টা ভিডিয়ো কনফারেন্সে বা ভিডিয়ো কলিংয়ের ফল হয় ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ হয়। যা ১২ লিটার জলের একটি জায়গায় বা iPad Mini-র জায়গা ব্যবহার করা যেতে পারে।পলিসিস্টিক ওভারি নিয়ে ভয়? অসুখ এড়াবেন কোন পথে? পড়ুন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ…পার্দ্যু ইউনিভার্সিটির গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ইন্টারনেট পরিকাঠামো কিভাবে জল ও ভূমির ব্যবহারে প্রভাব ফেলছে। এই সংক্রান্ত একটি সমীক্ষা করতে গিয়ে দেখা যায় যে, ইন্টারনেটের ডেটার প্রত্যেক গিগাবাইটে কতটা করে কার্ব, জল ও ভূমি যুক্ত রয়েছে। অর্থাৎ YouTube, Zoom, Facebook, Twitter, অনলাইন গেমিং ও ইন্টারনেট ব্যবহারের সঙ্গে কী ভাবে জল ও ভূমিতে প্রভাব পড়ছে! আর তার পরই গবেষকরা বুঝতে পারেন কার্বন নিঃসরণের বিষয়টি। গবেষণায় এটাও দেখা গিয়েছে যে, কনফারেন্সে কথা বলায় প্রচুর পরিমাণ বিদ্যুৎও খরচ হয়। অর্থাৎ ডেটা প্রসেস করতে ও ট্রান্মমিট করতে অনেকটা বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়। ডেটা প্রসেস করা ও স্টোর করা ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠলেও এর প্রভাব রয়েছে ভূমি ও জলের উপরে। যার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে কার্বন-ডাই-অক্সাইডও।গবেষকরা পাশাপাশি দেখেন, কোনও একজন ব্যক্তি ওয়েব প্ল্যাটফর্ম যে ব্যবহার করছেন, তাঁর দেশে এর প্রভাব কী ভাবে পড়ছে! যেমন-জার্মানি রিনিউয়েবল এনার্জির দেশগুলির মধ্যে প্রথম সারিতে থাকলেও এর জল ও ভূমিতে ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রভাব রয়েছে। সব মিলিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রভাব রয়েছে পরিবেশের উপরে। গবেষকরা আশা করছেন, এই বিষয়টি, গবেষণাটি মানুষকে সচেতন করবে! তবে, এই গবেষণা থেকে আরও জানা যায় যে, এই ভিডিয়ো কলিং বা কনফারেন্স যদি স্ট্যান্ডার্ড ডেফিনেশনে করা হয়, তা হলে তা কমে ৮৬ শতাংশ কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ করতে পারে।এই সময় ডিজিটালের লাইফস্টাইল সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।

Source link