Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 1, 2020 4:20 pm|    Updated: August 1, 2020 4:20 pm
সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে খুন আওয়ামি লিগ নেতা। শুক্রবার রাতে দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক সেরে ফেরার পথে তাঁকে কুপিয়ে খুন করে দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় রীতিমতো চঞ্চল্য ছড়িয়েছে দেশজুড়ে।[আরও পড়ুন: চিনের তৈরি করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের অনুমতি দিল না বাংলাদেশ]পুলিশ সূত্রে খবর, খুন হওয়া আওয়ামি নেতার নাম ইসলাম তালুকদার ওরফে নিক্সন (৪৮)। তিনি গোপালপুর উপজেলার হাদিরা ইউনিয়ন আওয়ামি লিগের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। টাঙ্গাইল সদর উপজেলার লায়ন নজরুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পদে কর্মরত ছিলেন তিনি। তাঁর বাড়ি হাদিরা ইউনিয়নের আজগড়া গ্রামে। তবে পাকাপাকিভাবে তিনি সপরিবারে পার্শ্ববতী ধনবাড়ি উপজেলা সদরে থাকতেন।জানা গিয়েছে, গতকাল বিকেলে ধনবাড়ি থেকে আজগড়া গ্রামের বাড়িতে যান আমিনুল। সন্ধ্যায় আজগড়া মোড়ে দলীয় নেতা–কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে রাত সাড়ে ১১টার দিকে মোটরসাইকেলে করে ধনবাড়ি ফিরছিলেন তিনি। এ সময় আজগড়া খালের সেতু থেকে একটু সামনে ওঁত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তাঁর মোটরসাইকেলের গতি রোধ করে। তাঁকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। আশপাশের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।এদিকে, এই ঘটনার পর এখনও পর্যন্ত হামলাকারীদের পাকড়াও করতে পারেনি পুলিশ। এই হত্যাকাণ্ডের তীব্র প্রতিবাদ করেছে আওয়ামি লিগ। দোষীদের শীঘ্রই গ্রেপ্তার করে উচিত শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে দলের তরফ থেকে। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় ধানবাড়ি থানায় মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হবে। রাজনৈতিক কারণে এই হত্যাকাণ্ড না কোনও ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরেই খুন হতে হয়েছে আওয়ামি নেতাকে, তাও খতিয়ে দেখা হবে।[আরও পড়ুন: ইদ ও বন্যায় আরও জটিল হতে পারে করোনা পরিস্থিতি, আশঙ্কা বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর]

Source link

Comments

comments