Published by: Paramita Paul |    Posted: November 22, 2020 5:34 pm|    Updated: November 22, 2020 5:34 pm
বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: একুশে বাংলা (Bengal) জয়ের লক্ষ্যে জোট বাঁধার পথে হাঁটছে বাং-কংগ্রেস। কিন্তু সরকারিভাবে জোট হওয়ার আগেই একাধিক জট তৈরি হচ্ছে। এবার সেই জট কাটাতেই প্রদেশ কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)।বাংলায় বাম-কংগ্রেস জোটের সম্ভাবনা কতটা, তাতে দলের লাভ-ক্ষতি সংক্রান্ত রিপোর্ট নিতে বাংলার নেতাদের সঙ্গে ২৭ নভেম্বর ভারচুয়াল বৈঠকে বসছেন রাহুল গান্ধী। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরিকে জোটের মুখ করা নিয়ে কংগ্রেসের বিভিন্ন স্তরে জল্পনা শুরু হয়েছে। বামেরা আবার সেই সম্ভবনা অঙ্কুরেই বিনাশ করতে চাইছে। এ কে গোপালন ভবন সূত্রে খবর, রাজ্য কমিটি থেকে রিপোর্ট পেয়েই তড়িঘড়ি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে কথা বলেন সিপিএমের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। এরপরই রাজ্যের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন রাহুল।[আরও পড়ুন: ‘হিম্মত থাকলে ভাইপো না বলে নাম বলুন’, স্বজনপোষণ ইস্যুতে বিজেপিকে পালটা কুণাল ঘোষের]জোট নিয়ে ইতিমধ্যে তিনদফা আলোচনা হয়েছে বাম-কংগ্রেসের রাজ্য নেতাদের মধ্যে। কিন্তু আসনরফা এখনও অধরা। আপাতত যৌথ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই পক্ষই। জোটের আলোচনা কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় তা নিয়ে কিছু প্রস্তাব দিয়েছিলেন প্রদেশ সভাপতি। যদিও তাতে আলিমুদ্দিনের সম্মতি সেভাবে মেলেনি। এরই মধ্যে অধীর চৌধুরিকে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করে ভোটে যাবে জোট এমন প্রকাশ্যে এমন বক্তব্য রেখেছেন প্রদেশ কংগ্রেসের দু-একজন নেতা। তাতেই জোটে জটিলতা বাড়তে শুরু করেছে। কংগ্রেস (Congress) নেতৃত্বের এহেন মন্তব্য সিপিএম (CPM) যে ভাল চোখে দেখছে না তা বলাইবাহুল্য।এই প্রসঙ্গে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী জানান, বামফ্রন্ট কোনওদিনই কাউকে মুখ করে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেনি। জ্যোতি বসু বা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য মুখ্যমন্ত্রী হবেন এটা মানুষ ধরে নিত। কিন্তু পার্টি বা ফ্রন্টের তরফে কাউকেই মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করে প্রচার করা হত না। সুজনবাবুর যুক্তি ও দাবির সঙ্গে একমত নয় বিধানভবন। তাঁদের যুক্তি, অধীর সংসদে বিরোধী দলনেতা। ধারে ও ভারে মমতার বিকল্প হতেই পারেন। তাই বামেরা অধীরের পায়ে বল দিলে গোল পাওয়ার সম্ভাবনা বাড়বে বেল জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা শুভঙ্কর সরকার। এই জট কাটাতেই এবার রাজ্যের কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে বসতে চলেছেন খোদ রাহুল গান্ধী। সেই আলোচনা কতটা ফলপ্রসূ হয়, তার দিকে তাকিয়ে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল।[আরও পড়ুন: ‘ভালবাসা ব্যক্তিগত, কারও কিছু বলার থাকতে পারে না’, ‘লাভ জেহাদ’ ইস্যুতে বিজেপিকে তোপ নুসরতের]

Source link

Comments

comments