হাইলাইটসআদালতের নির্দেশে শহরের দুই মূল সরোবরে ছট পুজোর আয়োজন বন্ধ করা গেলেও, মোটামুটি ভাবে উৎসবে মেতেছেন অনেকেই। এ নিয়ে রাজ্যে করোনার মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ল ৭ হাজার ৯৭৬ জন।পুজোর দিন কয়েক আগে থেকে শুরু করে পুজোর দিনগুলি-বাংলায় দৈনিক করোনা সংক্রমণ হচ্ছিল প্রায় সাড়ে চার হাজার করে। এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: আদালতের নির্দেশে শহরের দুই মূল সরোবরে ছট পুজোর আয়োজন বন্ধ করা গেলেও, মোটামুটি ভাবে উৎসবে মেতেছেন অনেকেই। তবে করোনার সংক্রমণ সেই ভাবে বাড়েনি বলা যায়। যদিও বাংলার জন্য করোনার দুঃসংবাদ মৃতের সংখ্যা বেড়ে চলা। রাজ্যের স্বাস্থ্য বুলেটিন অনুযায়ী, শনিবার (২১ নভেম্বর, ২০২০) রাজ্যে মোট করোনা সংক্রমণ হয়েছে ৩,৬৩৯ জনের। এ নিয়ে রাজ্যে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ৪ লক্ষ ৫২ হাজার ৭৭০ জন। তবে আশার আলো বলতে সুস্থতার হার। রাজ্যে সুস্থতার হার ৯২.৬৩ শতাংশ। করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫৩ জনের। এ নিয়ে রাজ্যে করোনার মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ল ৭ হাজার ৯৭৬ জন। শনিবার মোট ৪৪ হাজার ২০৮ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছে রাজ্যে।শীতের আগে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কিছুটা চিন্তায় কেন্দ্রীয় সরকার। এই মুহূর্তে দেশের ৫টি রাজ্য নিয়েই বেশি চিন্তা তৈরি হচ্ছে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে সেই তালিকায় রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের নাম। ফলে ফের এরাজ্যে করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আসার কথা কেন্দ্রীয় দলের। মাঝে দুদিন অনেকটাই কম থাকার পর আবার বাংলায় বাড়তে শুরু করেছে দৈনিক করোনা সংক্রমণ। যদিও ওই দুদিন টেস্টের সংখ্যাও ছিল সার্বিকভাবে কম। তবে, গত বুধবার লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরু হওয়ার পর অনেকেরই আশঙ্কা ছিল, ট্রেনের কামরায় স্বাস্থ্যবিধি না মানলে ব্যাপক আকারে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়বে বাংলায়। তবে লোকাল চালু হওয়ার পর সপ্তাহ ঘুরে গেলেও এখন আশায় আলো দেখতে পারেন বাংলার মানুষ। কারণ লোকাল ট্রেন শুরুর পর সংক্রমণ এখনও তেমন উল্লেখযোগ্য হারে বাড়েনি।উল্লেখ্য, পুজোর দিন কয়েক আগে থেকে শুরু করে পুজোর দিনগুলি-বাংলায় দৈনিক করোনা সংক্রমণ হচ্ছিল প্রায় সাড়ে চার হাজার করে। বর্তমানে দৈনিক করোনা সংক্রমণ একধাক্কায় কমে এসেছে সাড়ে ৩ হাজারের মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। রাজ্যে আশা জাগিয়ে ব্যাপক হারে বাড়তে শুরু করেছে সুস্থতার হারও। করোনা অতিমারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বাংলা যে ফের ঘুরে দাঁড়াচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের রিপোর্ট বিশ্লেষণ করলেই তার খানিকটা আভাস মেলে।আরও পড়ুন: ভারতে ১৩ কোটি কোভিড টেস্টের নজির, শেষ ১০ দিনেই ১ কোটি!এই সময় ডিজিটালের বিনোদন সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।

Source link

Comments

comments