fennel seeds: রেস্তোরাঁতে খাবার শেষে বিলের সঙ্গে আসে মৌরি! কেন জানেন? – restaurants in india are probably serving you ‘saunf’ (fennel seeds) for a reason you never knew!

হাইলাইটসবহু বাড়িতেই ভাজা মৌরি কৌটবন্দী করে রাখা হয়। বাড়িতে কোনও অতিথি এলে খাওয়ার শেষে তাঁর হাতে মৌরি তুলে দেওয়া বাঙালিদের রীতি। বিয়েবাড়িতেও মৌরি দেওয়া হয় সবশেষে। যদিও এখন আধুনিকীকরণ হয়েছে, কিন্তু বহু বাড়িই এখনও মৌরি দেওয়াই পছন্দ করেএই সময় জীবনযাপন ডেস্ক: পছন্দের রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে, খাওয়ার শেষে যখন বিল আসে তখন তার সঙ্গে সুন্দর একটি প্লেটে মৌরি আর মিছরিও আসে। অনেকেই এই মৌরির জন্য হা পিত্যেশ করে বসে থাকেন। এমনও কিছু মানুষ আছেন যাঁরা ছোঁ মেরে পুরো মৌরি সাবাড় করে দেন। আর এই মৌরি খাওয়ার পর মন কিন্তু বেশ ফুরফুরে হয়ে যায়য়। কিন্তু কেন রেস্তোরাঁতে খাওয়ার শেষে এই মৌরি দেওয়া হয় তা জানেন কি? এছাড়াও বহু বাড়িতেই ভাজা মৌরি কৌটবন্দী করে রাখা হয়। বাড়িতে কোনও অতিথি এলে খাওয়ার শেষে তাঁর হাতে মৌরি তুলে দেওয়া বাঙালিদের রীতি। বিয়েবাড়িতেও মৌরি দেওয়া হয় সবশেষে। যদিও এখন আধুনিকীকরণ হয়েছে, কিন্তু বহু বাড়িই এখনও মৌরি দেওয়াই পছন্দ করে। এছাড়াও রান্নাতে ফোড়ন হিসেবে মৌরির ব্যবহার আছে। যে কোনও ভারতীয় রেস্তোরাঁতেই খাবারের শেষে মৌরি দেওয়ার এই রীতি পালন করা হয়। ভারতীয় আর্য়ুবেদ শাস্ত্রে মৌরির বেশ কিছু উপকারিতা বর্ণনা করা রয়েছে। বেশ কিছু ওষুধ তৈরি করতেও ব্যবহার করা হয় মৌরি। এছাড়াও মৌরি চিবিয়ে খাওয়ারও বেশ কিছু সুফল রয়েছে। যেমনমৌরি মাউথ ফ্রেশনার হিসেবে কাজ করে। খুব সহজেই মুখের যে কোনও গন্ধ দূর করে দেয়। এছাড়াও অন্য কোনও রকম খাবার থেকে সংক্রমণের আশঙ্কাও কমায়। খাবার দ্রুত হজম করতে সাহায্য করে মৌরি। এছাড়াও দূর হয় কোষ্ঠকাঠিন্য। মৌরির মধ্যে থাকে খাদ্য হজমকারী বেশ কিছু ফাইবার। মৌরি চিবোলে যে লালা নির্গত হয় তা যে কোনও খাবারকে হজম করতে সাহায্য করে। অনেকের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকে। আর রেস্তোরাঁতে গেলে ঝাল-মশলা দেওয়া খাবারই বেশি। তাতে যেমন হজমের সমস্যা বাড়ে তেমনই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আসে। এসব সমস্যা এড়াতেই শেষ পাতে মৌরি দেওয়ার প্রচলন ছিল। শুধু রেস্তোরাঁ নয়, আগেকার দিনে যে কোনও বিয়েবাড়িতেই মৌরি দেওয়া হত। আরও পড়ুনকীভাবে ও কেন খাবেন থানকুনি পাতা? উপকারিতা জেনে নিনপেট পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে মৌরি। ইসবগুলের মধ্যে অন্যতম উপাদান হিসেবে থাকে মৌরি। এমনকী ওষুধের মধ্যেও এর ব্যবহার রয়েছে। যে কারণে স্বাস্থ্যবিধির কথা মাথায় রেখেই রেস্তোরাঁতে খাবার শেষে মৌরি পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও মৌরির আরও যা যা উপকারিতা রয়েছেমৌরিতে থাকা একপ্রকার আঁশ কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। মৌরি কৃমিনাশক হিসেবেও কাজ করে। নিয়মিত মৌরি খেলে হার্টঅ্যাটাকের ঝুঁকি কমে। এছাড়াও স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে। খাওয়ার পর মিয়ম করে মৌরি খেলে হজমশক্তি বাড়ে। এছাড়াও দৃষ্টিশক্তি ভালো হয়।ওজন কমাতে ও বাতের ব্যথার অর্ব্যর্থ ওষুধ হল মৌরি।রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে হাফ চামচ মৌরি গুঁড়ো এক গ্লাস জলে মিশিয়ে খেলে অনেক উপকারে আসে। যাঁদের অ্যাজমা রয়েছে তাঁরা যদি প্রতিদিন মধু আর মৌরি চিবিয়ে খান তাহলে উপকার পাবেন। ধূমপান ছাড়তে চাইছেন ? তাহলে সামান্য ঘি দিয়ে মৌরি ভেজে কৌটতে ভরে রাখুন। সিগারেট খেতে ইচ্ছে করলেই এক চামচ করে মৌরি ভাজা খান। তাতে নেশা কমবেই। একচামচ মৌরি ভাজা, এক চামচ চিনি সারা রাত এক গ্লাস জলে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে উঠে খেয়ে নিন। আমাশয়, গ্যাস এসবের থেকে মুক্তি পাবেন। আর শরীরও ঝরঝরে থাকবে। এই সময় ডিজিটালের লাইফস্টাইল সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।

Source link

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *