Published by: Paramita Paul |    Posted: August 1, 2020 6:47 pm|    Updated: August 1, 2020 6:58 pm
দীপঙ্কর মণ্ডল: অবশেষে প্রকাশিত হতে চলেছে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্সের (Joint Entrance Exam) ফলাফল। চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে পরীক্ষা হয়েছিল। এবার তার ফলপ্রকাশের পালা। শনিবার রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, ৭ আগস্ট  রাজ্য জয়েন্টের ফল প্রকাশিত হবে। প্রসঙ্গত, করোনা আবহে সর্বভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারিং প্রবেশিকা বা AIEEE পরীক্ষা এখনও হয়নি। তা হবে সেপ্টেম্বর মাসে।ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলির আসন ভরতি করার কথা মাথায় রেখে এ বছর অনেক আগেই জয়েন্ট বোর্ড পরীক্ষার আয়োজন করেছিল। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার আগে ২ ফেব্রুয়ারি রাজ্য জয়েন্ট পরীক্ষা হয়। পরিকল্পনা ছিল, দ্রুত ফল প্রকাশ করা। কিন্তু তা বাস্তবায়িত হল না। পরীক্ষার প্রায় ছয় মাস পর ফল প্রকাশিত হতে চলেছে। এ বছর পরীক্ষার্থী ছিল মোট ৮৮ হাজার ৮০০ জন। [আরও পড়ুন : ফের ভারতসেরা বাংলা, গণ অভিযোগ ব্যবস্থায় স্কচ ফাউন্ডেশনের সর্বোচ্চ পুরস্কার মমতা প্রশাসনের]এদিন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ওই দিন কখন ফলপ্রকাশ করা হবে, তা জয়েন্ট বোর্ডের আধিকারিকরাই ঠিক করবেন।  জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, অনলাইনে ফল প্রকাশ করা হবে। প্রকাশিত হতে পারে মেধাতালিকাও। প্রথম দশজনের নাম মেধাতালিকায় থাকবে। প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীকে র‍্যাঙ্ক কার্ড দেওয়া হবে। কাউন্সিলিংও হবে অনলাইনে। তবে করোনা আবহে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলির আসন আদৌও সম্পূর্ণ ভরতি হবে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েই গেল। [আরও পড়ুন : চূড়ান্ত অমানবিক! মানসিক ভারসাম্যহীন রোগীকে বেদম প্রহার সরকারি হাসপাতালে]জয়েন্টের ফল প্রকাশের দিন ঘোষণার পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রী এদিন বলেন, রাজ্যের দেওয়া হেল্পলাইন নম্বরের মাধ্যমে টেলিফোনে যোগাযোগ করতে পারবে ছাত্রছাত্রীরা। শিক্ষকদের সঙ্গে টোল-ফ্রি নম্বরে কথা বলতে পারবে। আপাতত নবম এবং দশম শ্রেণীর জন্য এই ব্যবস্থা। পরবর্তীকালে আরও বাড়ানো হবে পরিষেবা। এই উদ্যোগ ১ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে এর বিজ্ঞাপন দেওয়া শুরু হয়েছে। যে ছাত্রছাত্রীদের সুযোগ সুবিধা থাকবে না তারা ফোনে শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের দরকার জানতে পারবে।

Source link

Comments

comments