Published by: Sayani Sen |    Posted: October 21, 2020 11:20 am|    Updated: October 21, 2020 11:20 am
নব্যেন্দু হাজরা: করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতেই উৎসবের ঢাকে কাঠি। তবে তার মাঝে এখনও বেশ হাঁকিয়ে ব্যাটিং করছে করোনা। এই পরিস্থিতিতে মণ্ডপে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা হাই কোর্ট। তাই কিছুটা হলেও মনমরা হুজুগে বাঙালি। তবে তারই মাঝে এবার হাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে যেন প্রমাদ গুনছেন উৎসবপ্রেমীরা। কারণ, দক্ষিণবঙ্গে অষ্টমী পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি হয়েছে। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞাও জারি করা হয়েছে।আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে। যার সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে অন্ধ্র ও ওড়িশা উপকূলে। চতুর্থীতে কলকাতায় সামান্য বৃষ্টির সম্ভাবনা। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় বজায় থাকবে অস্বস্তি। নিম্নচাপের প্রভাবে বৃহস্পতিবার বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় অপেক্ষাকৃত বেশি বৃষ্টির আশঙ্কা আবহাওয়াবিদদের। আগামী ২৪ অক্টোবর অর্থাৎ অষ্টমী পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্তভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। এই কয়েকটা দিন উত্তাল হতে পারে সমুদ্রও। তাই মৎস্যজীবীদের বাংলা, ওড়িশা এবং বাংলাদেশের উপকূলে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।[আরও পড়ুন: ধর্ষণে অভিযুক্ত গৃহশিক্ষককে বাঁচানোর চেষ্টা! তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরব সিপিএম ও কংগ্রেস]এদিকে, দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বিদায় রেখা ফের সক্রিয় হবে। আগামী দু-তিনদিন পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম ও ছত্তিশগড়-সহ বিভিন্ন রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায় পর্ব শুরু হবে। একের পর এক নিম্নচাপের জন্য বর্ষা বিদায় রেখাও একই জায়গায় আটকে রয়েছে। তাই উৎসবের মরশুমে কোভিড সতর্কতা মেনেও বাড়ি থেকে এক পা বেরনো যাবে কিনা, সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে বাঙালির অন্তরে।[আরও পড়ুন: বাজেয়াপ্ত হওয়া সোনার হিসাবে গরমিল! ক্লোজ করা হল নাগরাকাটা থানার ওসিকে]

Source link

Comments

comments