Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: January 14, 2021 4:04 pm|    Updated: January 14, 2021 4:40 pm

ছবি: প্রতীকী জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: বসিরহাটের (Basirhat) ন্যাজাটে তৃণমূল নেতাকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বর্তমানে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন তিনি। কী কারণে এই হামলা? সেবিষয়ে এখনও সম্পূর্ণ অন্ধকারে পুলিশ। ঘটনার জেরে উত্তপ্ত এলাকা।উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের ন্যাজাট থানার তালতলার বাসিন্দা বছর চল্লিশের সুন্নত আলি মোল্লা। তৃণমূল (TMC) নেতা হিসেবে এলাকায় পরিচিত তিনি। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় ৬-৭ জন দুষ্কৃতীর একটি দল তাঁকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি গুলি চালায়। শব্দে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন সুন্নত। ততক্ষণে এলাকা ছেড়েছে দুষ্কৃতীরা। এরপর তড়িঘড়ি ওই তৃণমূল নেতাকে উদ্ধার করে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন সুন্নত।[আরও পড়ুন: বৈঠকে মেলেনি আমন্ত্রণ, আচমকা উপস্থিত হয়ে অভিমানে কান্নায় ভেঙে পড়লেন তৃণমূল নেত্রী]পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, ওই তৃণমূল নেতার দু’পায়ে মোট ৯ টি গুলি লেগেছে। তাঁদের অভিযোগ, হাবিবুর রহমান ওরফে বাচ্চা খোকন নামে এক কুখ্যাত দুষ্কৃতী ও তার দলবল পরিকল্পনমাফিক এই হামলা চালিয়েছে। কিন্তু কেন এই হামলা? রাজনীতি নাকি অন্য কোনও শত্রুতার জেরে এই পরিণতি সুন্নতের? তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ। ঘটনার শিকড়ে পৌঁছতে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করা  হয়েছে।[আরও পড়ুন: অস্ত্রোপচারের সামর্থ্য নেই, প্রশাসনের উদ্যোগে নিঃসন্তান বৃদ্ধার বাড়িতে পৌঁছল স্বাস্থ্যসাথী কার্ড]

Source link

Comments

comments