হাইলাইটসদীর্ঘদিন ধরে যদি ডায়েট থেকে কার্বোহাইড্রেট বাদ থাকে তাহলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। এই আশঙ্কা থেকে অনেকেই খাদ্য তালিকা থেকে বাদ রাখেন আলুএই সময় জীবনযাপন ডেস্ক: সুস্থ থাকতে সকলেই রাশ টানতে চান খাদ্য তালিকায়। আর ডায়েটে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ কমিয়ে সকলেই প্রোটিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেন। কিন্তু এই ডায়েট কি আদৌ বিজ্ঞানসম্মত? পুষ্টিবিদরা কখনই এমন ডায়েটের কথা বলেন না। দীর্ঘদিন ধরে যদি ডায়েট থেকে কার্বোহাইড্রেট বাদ থাকে তাহলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। এই আশঙ্কা থেকে অনেকেই খাদ্য তালিকা থেকে বাদ রাখেন আলু। আবার অনেকে ভাবেন আলুর থেকেও ক্ষতিকর মিষ্টি আলু। আর তাই ভুল করেও ছুঁড়ে দেখেন না। কিন্তু মিষ্টি আলুরও অনেক উপকারিতা রয়েছে। হার্ট থেকে ডায়াবিটিস-স্বাস্থ্য সমস্যায় জুড়ি নেই রাঙা আলুর। মিষ্টি আলুর পুষ্টি ও উপকারিতাযে কোনও আলুই পুষ্টিতে সমৃদ্ধ। তবে মিষ্টি আলু খুবই স্বাস্থ্যকর। তবে মিষ্টি আলুতে ক্যালোরি ও কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ অনেকটাই কম। এছাড়াও মিষ্টি আলুতে উচ্চ মাত্রায় ‘ভিটামিন এ’ থাকে। ‘ভিটামিন এ’ আদতে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, যা ইমিউনিটি বৃদ্ধি করে এবং সুস্থ ত্বক ও দৃষ্টি বজায় রাখতে সাহায্য করে। সম্প্রতি একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে দৈনিক প্রোটিন চাহিদার ৮০ শতাংশ পূরণ করে মিষ্টিআলু। মিষ্টি আলুতে প্রচুর ভিটামিন সি ও ভিটামিন বি৬ থাকে, যা মস্তিষ্ক ও স্নায়ুতন্ত্রের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এটি পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামেরও ভালো উৎস, যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রেখে হার্টের কাজ বজায় রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও মিষ্টি আলুতে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার আছে, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে এবং ক্রনিক রোগের ঝুঁকি কমায়, যেমন- টাইপ ২ ডায়াবিটিস ও হাই কোলেস্টেরল।আরও পড়ুন: কিডনিতে পাথর? কাটাছেঁড়া ছাড়াই সমাধান এই ঘরোয়া খাবারকেন মিষ্টি আলু খাবেনমিষ্টি আলু খনিজতে ভরপুর। এছাড়াও সারাদিনে একটি মিষ্টি আলু খেলেও দৈনিক চাহিদার অনেকখানি পূরণ হয়। যাঁরা প্রতিদিন বাড়ির বাইরে যান, যাঁরা অ্যাথলেটিক তাঁদের ডায়েটে মিষ্টি আলু রাখতে বলা হয়। এমনকী মিষ্টি আলুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্ষতিকর টক্সিন বের করে শরীরকে ভেতর থেকে ফ্রেশ রাখে। মিষ্টি আলু কীভাবে খাবেন?কেনার সময় গাঢ় রঙের মিষ্টি আলু কিনুন। কিছু গবেষণায় পাওয়া গেছে, মিষ্টি আলুর রঙ (এটি কমলা, হলুদ অথবা পার্পল যে রঙেরই হোক না কেন) যত বেশি গাঢ় হবে, পুষ্টিগুণ তত বেশি হবে। খোসা ছাড়িয়ে মিষ্টি আলু খাবেন না। ভালো করে ধুয়ে নিয়ে খোসা-সহ সেদ্ধ করে খান। মিষ্টি আলু, সয়ামিল্ক আর দারচিনি গুঁড়ো দিয়ে স্যুপ বানিয়ে খান। খুব ভালো উপকারে আসে। তবে খুব বেশি সেদ্ধ করবেন না। এতে পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়। রোস্ট, বেক, বয়েল যেভাবে খুশি খান। কিন্তু কখনই ভেজে বা চিপস বানিয়ে খাবেন না। এই সময় ডিজিটালের লাইফস্টাইল সংক্রান্ত সব আপডেট এখন টেলিগ্রামে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন এখানে।

Source link

Comments

comments