এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: পূ্র্বাভাস মতো পারদ নামতে শুরু করল শহরে। আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রির নীচে নামতে শুরু করবে। আগামী সোমবার থেকে ঠান্ডা পড়া শুরু হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। মৌসম ভবন জানিয়েছে, এই মুহূর্তে একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা কাশ্মীরে ঢুকছে। ভূমধ্যসাগর থেকে জলীয় বাষ্প বয়ে দেশের পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে সরে ঝঞ্ঝা। সে সময় তাপমাত্রা বাড়ে। আবহবিদরা মনে করছেন, এই ঝঞ্ঝাটি পশ্চিম হিমালয়ে তুষারপাতের পরিস্থিতি তৈরি করবে। এবং ঝঞ্ঝা সরে গেলেই সেই তুষারছোঁয়া বাতাস সমতলে নেমে আসবে। সোমবার থেকে তার প্রতিফলন দেখতে পাবে বাংলাও। কলকাতার তাপমাত্রা ১৮ ডিগ্রিতে নেমে যেতে পারে। জেলায় তাপমাত্রা থাকবে আরও কম। বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গে। তবে শীতের জন্য মাঝ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা ছাড়া গতি নেই, মন্তব্য এক আবহবিদের।আরও বাড়ল তাপমাত্রা, সোমবার থেকে ঠান্ডা পড়বে! তবে শীত দূরেইবহু প্রতীক্ষিত শীত পড়তে শুরু করবে সোমবার থেকেই। শনিবার ভোরে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে এক পশলা বৃষ্টির জেরে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে কম। সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ। রবিবার শীতের আমেজ অনুভূত হবে বলে জানা গিয়েছে। চলতি মরসুমের শুরুতে জাঁকিয়ে ঠান্ডা পড়েছিল দিল্লি-সহ উত্তর ভারতে। তার সামান্যই এসে পৌঁছয় বাংলায়। ৬ নভেম্বর প্রথমবার কলকাতার তাপমাত্রা কুড়ির নীচে নামে। ৮ নভেম্বর পারদ নামে ১৮.৩ ডিগ্রিতে। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২২.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি।নভেম্বরের শুরুটা একেবারে মন্দ হয়নি। কিন্তু ঠান্ডা আমেজ মিলেছে মাত্র দিন তিন-চারেক। তার পর কখনও পশ্চিমি ঝঞ্ঝা, কখনও সাগরের উচ্চচাপ বলয়ের কুনজরে আকাশে মেঘ ঢুকেছে, কমেছে ঠান্ডার অনুভূতি। বুধবার বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিও হয় দক্ষিণবঙ্গে। তবে সোমবার থেকে এই প্রতিকূল পরিস্থিতি কেটে যাবে বলেই মনে করছেন আবহবিদরা। পড়বে বহু প্রতীক্ষিত ঠান্ডা। তবে শীত আসতে ঢের দেরি, তাও মনে করিয়ে দিয়েছেন আবহবিদরা।এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন-

Source link

Comments

comments